“জঙ্গলরাজের যুবরাজ থেকে দূরে থাকুন”: মোদি

289

পটনা: লালুপ্রসাদ যাদবের ঘাঁটি ছাপড়ার জনসভা থেকে নাম না করে রাহুল গান্ধি এবং তেজস্বী যাদবকে বিঁধলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। দ্বিতীয় দফার নির্বাচনে প্রচারের শেষ মুহূর্তে ময়দানে নেমে রবিবার হুঙ্কার দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাঁর দাবি, উত্তরপ্রদেশে ‘দুই যুবরাজ’-এর যে পরিণতি হয়েছিল, তার পুনরাবৃত্তি হবে বিহারেও। তিনি বলেন, ‘‘বছর তিনেক আগে উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনেও সাধারণ মানুষের সঙ্গে হাত মিলিয়েছিলেন দুই যুবরাজ। কিন্তু উত্তরপ্রদেশের মানুষ তাঁদের বাড়ি পাঠিয়ে দিয়েছিলেন।’’

- Advertisement -

গত ২০১৭ সালে উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেস এবং সমাজবাদী পার্টি জোট করেছিল। বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে রাহুল গান্ধি এবং মুলায়ম-পুত্র অখিলেশ যাদব হাত ধরাধরি করে নেমেছিলেন। কিন্তু ব্যাপক হারের মুখে পড়তে হয় সেই জোটকে। এ দিন মোদি উত্তরপ্রদেশের প্রতিবেশী বিহারে বিধানসভা নির্বাচনের সেই জোটের উদাহরণ তুলে ধরেন।

২০২০ বিহার বিধানসভা নির্বাচনে লালুপ্রসাদের রাষ্ট্রীয় জনতা দল (আরজেডি)-এর সঙ্গে কংগ্রেস জোট করেছে। বামেরাও তাদের সঙ্গী হয়েছে। এই জোটের মধ্যে আরজেডি নেতা তথা লালুর পুত্র তেজস্বী যাদব ও রাহুল গান্ধিকে মোদি ‘দুই যুবরাজ’ বলে উল্লেখ করেছেন। তাদের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে এ দিন মোদি বলেন, ‘‘এক যুবরাজ জঙ্গলরাজের যুবরাজের সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন। ভোটের ফল ঘোষণার পর ‘দুই যুবরাজ’-এর দল মাটিতে মিশে যাবে।’’

যদিও তেজস্বী যাদব মোদির ‘যুবরাজ’ কটাক্ষের উত্তর না দিলেও তাঁর বক্তব্য, ‘‘‘উনি দেশের প্রধানমন্ত্রী, যা খুশি বলতে পারেন।’’ তবে বিহারের গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুগুলির কথা যে বক্তৃতায় তোলা উচিত বলে তিনি মন্তব্য করেন।