করোনা পরিস্থিতিতে অক্সিজেন ও মাস্ক ব্যাংক চালু করলেন গাড়িচালক

162

বীরপাড়া: করোনার বিরুদ্ধে লড়াই জারি রাখতে অক্সিজেন ও মাস্ক ব্যাংক চালু করলেন এক গাড়িচালক। বীরপাড়ার ডিমডিমা হাটখোলার বাসিন্দা সাজু তালুকদার গাড়ি চালানো ছেড়ে রুজির সংস্থানে কিছুদিন আগে চায়ের দোকান খুলেছিলেন। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে চায়ের দোকান বন্ধ রেখেছেন তিনি। ওই বন্ধ চায়ের দোকানেই আপাতত চলবে অক্সিজেন ও মাস্ক ব্যাংক।

তাঁর এই উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। বুধবার অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে অক্সিজেন ও মাস্ক ব্যাংকের উদ্বোধন করেন মাদারিহাটের ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক দেবজ্যোতি চক্রবর্তী। উপস্থিত ছিলেন রাজ্য পুলিশের বীরপাড়ার সিআই বিনোদ গজমের, মাদারিহাট বীরপাড়া পঞ্চায়েত সমিতির পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ রশিদুল আলম, তৃণমূলের ফালাকাটা ব্লকের সভাপতি সুভাষ রায় প্রমুখ।

- Advertisement -

ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক জানান, সাজুবাবুর উদ্যোগ করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সহায়ক হবে। এ ব্যাপারে স্বাস্থ্যদপ্তরের তরফে যথাসম্ভব সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন তিনি।  সাজুবাবু জানান, গুরুতর পরিস্থিতিতে বিনামূল্যে মিলবে অক্সিজেন।

জানা গিয়েছে, একসময় গাড়ি চালিয়ে রুজির সংস্থান করতেন তিনি। পরে মনোনিবেশ করেন সমাজসেবামূলক কাজে। চালু করেন বস্ত্র ব্যাংক। দরিদ্রদের সারাবছর বস্ত্র দেওয়া হয় সেখান থেকে। বিভিন্ন এলাকার ভবঘুরে, আশ্রয়হীনদের জন্য তৈরি করেছেন শেল্টার হোম। সেখানে ১৮ জন আবাসিক রয়েছেন। সাধারণ মানুষের সহযোগিতায় চলছে শেল্টার হোম।

অক্সিজেন ও মাস্ক ব্যাংকও চালু করলেন সাধারণ মানুষের সহযোগিতায়। প্রথমে তিনটি সিলিন্ডার ও ২ হাজার মাস্ক নিয়ে শুরু হল ওই ব্যাংক। এজন্য আমেরিকায় কর্মরত ১ জন প্রবাসী ভারতীয়, মালদার ১ জন বাসিন্দা এবং কলকাতার একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা একটি করে অক্সিজেন সিলিন্ডার দিয়েছেন। বানারহাটের এক বাসিন্দা দিয়েছেন মাস্ক।