A Mayo Clinic-led study found that protective mastectomies that preserve the nipple and surrounding skin prevent breast cancer as effectively as more invasive surgeries for those with BRCA. (Fotolia)

নয়াদিল্লি, ১৮ মার্চঃ বিশ্বে মহিলাদের চেয়ে পুরুষরাই কর্কট রোগের শিকার। তবে ভারতে ছবিটা উলটো। একটি মেডিক্যাল জার্নালের রিপোর্ট অনুযায়ী, ভারতে এখন পুরষদের তুলনায় মেয়েরাই বেশি কর্কট রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন।

মেডিক্যাল জার্নাল ‘ল্যানসেট অঙ্কোলজি’র তথ্য অনুযায়ী, এদেশে মেয়েরা মূলত স্তন ক্যানসারে আক্রান্ত হচ্ছেন। ওভারিয়ান ক্যানসারও বেশি হচ্ছে। রিপোর্ট বলছে, ভারতে বর্তমানে ক্যানসারের বোঝা বইছেন ১৫ লক্ষ মানুষ। আগামী ২০বছরে সংখ্যাটা দ্বিগুণ হওয়ার আশঙ্কাও প্রকাশ করা হয়েছে রিপোর্টে। বিজ্ঞানের কল্যানে ক্যানসার প্রতিরোধক কিছু ওষুধ আবিস্কৃত হলেও এদেশের তার নাগাল খুব একটা পান না। ভারতে ক্যানসার ধরা পড়ার পর ৩০ শতাংশেরও কম মানুষ সুস্থ হন।

জার্নালের তথ্য অনুযায়ী, একটা সময়ে প্রতিবছর ২ লক্ষেরও বেশি পুরিষ ক্যানসারে মারা যেতেন। মহিলাদের ক্ষেত্রে এই সংখ্যাটা ছিল ১ লক্ষ ৯৫ হাজারের কিছু বেশি। ২০১১-এর জনগণনার রিপোর্টে দেখা গিয়েছে, মহিলারা পুরুষদের ছাড়িয়ে গিয়েছে। এছাড়া আরও দাবি করা হয়েছে, ৯০ শতাংশ মহিলার ক্যানসার জিনঘটিত নয়। ক্যানসারের ক্ষেত্রে মূল সমস্যা হল রোগ নির্ণয়ের জন্য উপযুক্ত পন্থা-পদ্ধতি এবং সচেতনতার অভাব।