জলপাইগুড়ি বিধানসভা ক্ষেত্রে এবারে শ্বশুর-জামাইয়ের লড়াই

145

জলপাইগুড়ি: জলপাইগুড়ি বিধানসভা কেন্দ্রে এবারে শ্বশুর-জামাইয়ে লড়াই হবে। আর তা নিয়ে তোড়জোড় তুঙ্গে। সূত্রের খবর, তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী ডাঃ প্রদীপ কুমার বর্মা। শুক্রবার তাঁর নাম আজই ঘোষিত হয়েছে। আনুষ্ঠানিকভাবে কংগ্রেসের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা না হলেও জলপাইগুড়ি কেন্দ্রের স্ট্যান্ডিং বিধায়ক হিসাবে ডাঃ সুখবিলাস বর্মা কংগ্রেসের টিকিট পাচ্ছেন। সম্পর্কে প্রদীপবাবুর মেসো শ্বশুর হলেন ডাঃ সুখবিলাস বর্মা। আর এই নিয়েই সরগরম এখন জেলার রাজনীতি।

এদিন শ্বশুরের বিরুদ্ধে প্রার্থী হবার বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে ডাঃ প্রদীপ বর্মা বলেন, ‘রাজনীতির ক্ষেত্রে নীতি এবং আদর্শ শেষ কথা। এক্ষেত্রে ব্যক্তিগত এবং পারিবারিক সম্পর্ক স্বতন্ত্র। শ্বশুর ডঃ সুখবিলাস বর্মার সঙ্গে আমার সম্পর্ক খুবই সুমধুর। ভোটের বিষযটি স্পোটিংলি নিয়েছি। জলপাইগুড়ি শহরের জল নিকাশি সমস্যাকে তিনি যেমন প্রাধান্য দেবেন তেমনি পুর কর্পোরেশন গঠন উড়ালপুল নির্মাণ, গ্রামীণ এলাকার সেচ ব্যবস্থার অগ্রগতির জন্য বিধায়ক নির্বাচিত হলে চেষ্টার ত্রুটি রাখবেন না। মানুষের আশীর্বাদ আমি প্রার্থনা করি।’

- Advertisement -

জলপাইগুড়ি সদর ব্লকের রাখালদেবীতে ডাঃ সুখবিলাস বর্মার শ্বশুরবাড়ি। জামাই তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী হওয়ার বিষয়ে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, ‘ভোটের ক্ষেত্রে বাবা-ছেলের লড়াই হয়। ভাইয়ে ভাইয়ে লড়াই হয়। জলপাইগুড়িতে না হয় শ্বশুর-জামাইয়ে লড়াই হবে। লড়াইয়ে ময়দানে কংগ্রেস তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপিকে পরাজিত করতে বদ্ধপরিকর। দীর্ঘ ১০ বছর ধরে জলপাইগুড়ি বিধানসভা ক্ষেত্রের বিধায়ক আমি। এই আসনের সর্বত্র আমি হাতের তালুর মত চিনি। তাই বাড়তি অ্যাডভানটেজ রয়েছে।’