মিড-ডে মিলের চালের লোভে স্কুলে হাতির হানা, ভাঙল ঘর

204

ক্রান্তি: মিড-ডে মিলের চালের খোঁজে স্কুলে হানা দিল একটি হাতি। রবিবার ভোরে ঘটনাটি ঘটেছে রাজাডাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েতের মাগুরমারি বনবস্তি এলাকায়। পরে বস্তির বাসিন্দারা ঢিল ছুঁড়ে হাতিটিকে জঙ্গলের দিকে তাড়িয়ে দেন। সকালে বন দপ্তরের আপালচাঁদ রেঞ্জের বনকর্মীরা ক্ষতিগ্রস্ত স্কুল ঘরটি দেখতে ঘটনাস্থলে যান। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন ৫টা নাগাদ হাতিটি জঙ্গল থেকে বের হয়ে আপালচাঁদ ফরেস্ট ভিলেজ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দেওয়াল ও জানলার গ্রিল ভেঙে ফেলে। মিড-ডে মিল রান্নার ঘরের দেওয়ালও ভেঙে দেয়। স্কুলের শিক্ষক বিশ্বজিত ওরাওঁ জানান, মিড-ডে মিলের খাওয়ার লোভে স্কুল ঘরের ওপর এই নিয়ে তিনবার হামলা চালালো হাতি।

সীমানা প্রাচীর না থাকায় হাতিটি স্কুলে ঢুকে পড়ছে। এদিন হাতিটি স্কুলঘরটি এমনভাবে ভেঙেছে যে কোনও সময় সেটি ধসে পড়তে পারে। স্কুলের জানলা, দরজা ও দেওয়াল ভেঙে যাওয়ায় স্কুলের চেয়ার টেবিল, বেঞ্চ সহ অন্যান্য সামগ্রী চুরি হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন তিনি। সমগ্র বিষয়টি সংশ্লিষ্ট দপ্তরকে জানানো হয়েছে বলেও জানান তিনি। স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য সুমন ওরাওঁ জানান, বনবস্তি এলাকায় তিনটি স্কুল রয়েছে। ওই তিনটি স্কুলে মাঝেমধ্যেই হাতি হামলা করে। এজন্য তিনি এলিফ্যান্ট ফেন্সিংয়ের দাবি তুলেছেন। এ বিষয়ে আপালচাঁদ রেঞ্জের বীট অফিসার ধুর্জটি সিং জানান, বনবস্তির অনেকাংশই ফেন্সিংয়ে ঘেরা ছিল। এবার সেগুলি মেরামতের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। জয়েন্ট ফরেস্ট ম্যানেজিং কমিটি এই ফেন্সিং মেরামতের কাজ করবে।

- Advertisement -