বীর বীরসা মুন্ডার মূর্তির উদ্বোধন মালবাজারে

176

মালবাজার: বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে মাল বাসস্ট্যান্ডের সামনে বীর বীরসা মুন্ডার পূর্ণায়াব মূর্তির উদ্বোধন হল। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাজ্যের মন্ত্রীদের পাশাপাশি বিভিন্ন মহলের ব্যক্তিত্বরা উপস্থিত ছিলেন। আয়োজকদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে মালের বিধায়ক বুলু চিক বড়াইকের উদ্যোগেই মূর্তি স্থাপন করা হয়েছে। এদিন আদিবাসী সংস্কৃতির পরম্পরা মেনে অনুষ্ঠান হয়।

বীর বীরসা মুন্ডার মূর্তির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাজ্যের পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব, রাজ্যের অনগ্রসর শ্রেণী কল্যাণ দপ্তরের মন্ত্রী বিনয়কৃষ্ণ বর্মন, মালের বিধায়ক বুলু চিক বড়াইক, মাল পুরসভার প্রশাসক বোর্ডের চেয়ারর্পাসন স্বপন সাহা, তৃণমূল কংগ্রেসের জলপাইগুড়ি জেলা কমিটির সভাপতি কৃষ্ণকুমার কল্যাণী, মুখপাত্র দুলাল দেবনাথ, পর্যবেক্ষক ওমপ্রকাশ মিশ্র প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান আয়োজক ডুয়ার্স তরাই সারনা যুব সমিতির পক্ষে রাঙ্গামাটি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান

- Advertisement -

অশোক চিক বড়াইক বলেন, ‘মালের বিধায়কের আর্থিক আনুকূল্যেই মূর্তি স্থাপন করা হয়েছে। মূর্তিটি ফাইবারের। আমরা সকলে মিলেই অনুষ্ঠান আয়োজন করেছি। মন্ত্রী গৌতম দেব বলেন বীর বীরসা মুন্ডার মূর্তি স্থাপন সহ নানা উন্নয়নমূলক কাজ করা হচ্ছে। আমরা আদিবাসী জনসমাজের পাশে আছি। চা সুন্দরী, জয় জোহার সহ নানা প্রকল্প নেওয়া হয়েছে।‘

পুরসভার চেয়ারর্পাসন স্বপন সাহা বলেন, ‘আমরা মন্ত্রী মহলের কাছে অনুরোধ করছি বীর বীরসা মুন্ডার নামেই মাল বাসস্ট্যান্ডের নামকরণ করা হোক। বীর বীরসা মুন্ডার মূর্তির পাশেই নেপালী ভাষার আদি কবি ভানুভক্ত আচার্যেরও মূর্তি আছে। আমরা আবেদন করছি ওই এলাকাতে সৌন্দর্যায়ন করে একটি উদ্যান করে দেওয়া হোক।‘

এদিন মন্ত্রী সহ অতিথিদের মাল উদ্যান থেকে আদিবাসী সংস্কৃতির মাধ্যমে অভ্যর্থনা করে বাসস্ট্যান্ডের সামনে নিয়ে আসা হয়। সেখানে আদিবাসী রীতিনীতি মেনে পুজো অর্চনার মাধ্যমে বীর বীরসা মুন্ডার মূর্তির সামনের আবরণ উন্মোচন করা হয়।