শিল্পপতি গড়তে আঁতুড় এবিএন শীল কলেজে

85

গৌরহরি দাস, কোচবিহার : আজকাল স্টার্টআপের যুগ। অর্থাত্ নতুন কিছু করে নিজের পাশাপাশি আর পাঁচজনের কাজের সুযোগের ব্যবস্থা করা। খুব ছোট অবস্থা থেকে শুরু করে বিরাট বড় হয়ে ছড়িয়ে পড়া। আজ দুনিয়া কাঁপানো সংস্থা অ্যামাজন-এর পথচলা একদিন এক মামুলি গ্যারাজে শুরু হয়েছিল। নতুন কিছু করার লক্ষ্যে ফ্লিপকার্টেরও খানিকটা একইভাবে আত্মপ্রকাশ। আজ এই দুই সংস্থায় লক্ষ লক্ষ মানুষ কর্মরত। তবে আজকাল চাকরির বাজারে বেশ আকাল। তাই কীভাবে শিল্পপতি হওয়া যায় সেদিকে অনেকেরই নজর। এই লক্ষ্যেই কোচবিহারের ঐতিহ্যবাহী সরকারি এবিএন শীল কলেজে একটি ইনকিউবেশন সেন্টার গড়ে তোলা হয়েছে। কীভাবে শিল্প গড়ে সবার ভালো থাকার ব্যবস্থা করা যায় সেই হদিস এই কেন্দ্রে মিলবে। এধরনের কোনও কেন্দ্র উত্তরবঙ্গ তো বটেই, গোটা রাজ্যে কোথাও নেই।

কলেজের পরিচালন সমিতির সভাপতি তথা কোচবিহারের জেলা শাসক পবন কাদিয়ান ৬ নভেম্বর এই কেন্দ্রটির উদ্বোধন করেন। কলেজের অধ্যক্ষ তথা ইনকিউবেশন সেন্টারের সভাপতি নিলয় রায়, কনফেডারেশন অফ ইন্ডিয়ান ইন্ডাস্ট্রিজ (সিআইআই)-এর উত্তরবঙ্গের চেয়ারম্যান সঞ্জয় টিবরেওয়াল, সংগঠনের জোনাল ডিরেক্টর লক্ষ্মী কৌশিক প্রমুখ সেখানে উপস্থিত ছিলেন। নিলয় বলেন, এই কেন্দ্রের মাধ্যমে আমরা আগামী পাঁচ বছরে বেশ কিছু ছাত্রছাত্রীকে স্বনির্ভর করে তুলতে চাই। পাশাপাশি, তাঁরা যাতে বেশ কয়েজনকে চাকরি বা কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দিতে পারেন তাও আমাদের নজরে রয়েছে। সামগ্রিকভাবে কোচবিহারকে স্বনির্ভর করে তোলাটাই তাঁদের লক্ষ্য বলে নিলয় জানান। জেলা শাসক গোটা উদ্যোগের প্রভূত প্রশংসা করেছেন।

- Advertisement -

অ্যামাজন, ফ্লিপকার্ট এমন ইনকিউবেশন সেন্টার-এর ফসল বলেই মনে করা হয়। সম্প্রতি কানপুর আইআইটির ইনকিউবেশন সেন্টারে ৫০ হাজার টাকায় ভেন্টিলেটার তৈরি করা হয়েছে। এমনিতে ভেন্টিলেটারের দাম অনেক। কানপুর আইআইটির ইনকিউবেশন সেন্টারে তৈরি ভেন্টিলেটারটি বাজারে এলে ভালো কদর পাবেই বলে মনে করা হচ্ছে। ইনকিউবেশন সেন্টারের গুরুত্ব দেখে আজকাল অনেকেই এই কেন্দ্রগুলিতে বিনিয়োগ করছেন। অভিনেত্রী আলিয়া ভাট নিজে কানপুর আইআইটির ইনকিউবেশন সেন্টারে বিনিয়োগ করেছেন।

কীভাবে এই কেন্দ্র কাজ করবে? নিলয় জানান, তাঁদের কলেজের কেন্দ্রে কোচবিহারের বিভিন্ন মেধাবী ছাত্রছাত্রীরা তাঁদের প্রোজেক্ট জমা দিতে পারবেন। এবিএন শীল কলেজের অধ্যক্ষকে সভাপতি করে যে ১০ জনের কমিটি গড়া হয়েছে তা এই প্রোজেক্টগুলি খতিয়ে দেখবে। প্রোজেক্টের ভালো ভবিষ্যৎ আছে বলে মনে করলে কমিটি সংশ্লিষ্টদের সাহায্য করতে এগোবে। কীভাবে সেই পরিকল্পনাকে বাজারজাত করার পাশাপাশি গোটা বিষয়টিকে প্যাকেজে পরিণত করা যাবে সেই উপায় কমিটিই বাতলে দেবে। কীভাবে নানা সরকারি সাহায্য মিলবে, গোটা বিষয়টি শিল্পের সঙ্গে যুক্ত করা যাবে সেই উপায় বিশেষজ্ঞরাই বলে দেবেন। হাতেকলমে প্রশিক্ষণ দেওয়ার পাশাপাশি এই কেন্দ্র থেকে ভবিষ্যতের শিল্পপতিকে ল্যাবরেটরির সুবিধা, কম্পিউটার প্রোগ্রামিং সহ নানাভাবে সাহায্য করা হবে। আপাতত কেন্দ্রটি ছোট করে চালু করা হলেও কলেজের সামনে থাকা বাণী ভবনটিকে কর্তৃপক্ষ পরে সময়মতো বড় ইউকিউবেশন সেন্টার হিসাবে গড়ে তুলতে চায়।

ওয়াশিংটনের বেলভিউয়ে এক গ্যারাজে চালু হওয়া অ্যামাজনের জেফ বেজোসকে আজ গোটা দুনিয়া চেনে। এবিএন শীল কলেজের এই ইনকিউবেশন সেন্টার ভবিষ্যতে উত্তরবঙ্গ থেকে এমনই এক জেফ বেজোসকে হয়তো গোটা দুনিয়ার সামনে তুলে ধরবে। সেই স্বপ্নেই বুঁদ কোচবিহার তথা গোটা উত্তরবঙ্গ।