নয়াদিল্লি, ২৫ ফেব্রুয়ারিঃ ভারত সফরের দ্বিতীয় দিনে রাষ্ট্রপতি ভবনে অনুষ্ঠানের পর দিল্লির হায়দরাবাদ হাউসে বৈঠক সাড়লেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মঙ্গলবার দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের পর সাংবাদিক সম্মেলনে দুই রাষ্ট্রপ্রধান জানান, দু’দেশের প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তার বিষয়গুলি নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তার ক্ষেত্রে কৌশলগত অংশিদারিত্ব, তথ্যপ্রযুক্তি দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যিক সম্পর্কের মতো সব বিষয়েই আলোচনা হয়েছে।’ মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘এই সফর দু’দেশের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ। ইসলামিক সন্ত্রাসবাদ রুখতে প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে কথা হয়েছে। অ্যাপাচে ও বিশ্বের মধ্যে সেরা এমএইচ-৬০ হেলিকপ্টার নিয়ে আমাদের মধ্যে চুক্তি হয়েছে। সন্ত্রাস দমনে পাকিস্তানের সঙ্গেও নিরন্তর আলোচনা চালানো হচ্ছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘এর আগে ভারত ও আমেরিকার সম্পর্ক কখনও এতটা ভালো ছিল না। আমরা এমন কিছু কাজ করছি, যা দু’দেশের উন্নয়নে সহায়ক হবে। সুন্দর ভবিষ্যতের জন্য দুই দেশ যৌথ ভাবে কাজ করবে।’

সোমবারের নমস্তে ট্রাম্প অনুষ্ঠানে লক্ষাধিক মানুষের অভ্যর্থনা পেয়ে খুশি মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তিনি বলেন, ‘আমদাবাদের মোতেরা স্টেডিয়ামে যেভাবে আমাকে আপনারা স্বাগত জানিয়েছেন, সেটা আমার কাছে বিরাট সম্মানের। নরেন্দ্র মোদিকে দেশ খুব ভালবাসে।’ তিনি আরও বলেন, ‘ভারতের আতিথেয়তায় আমি এবং মেলানিয়া মুগ্ধ।’ ট্রাম্পকে ভারতে আসার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীও। প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তার বিষয়গুলি ছাড়াও নারীশক্তি বৃদ্ধি, ভারতীয় উপমহাদেশের শান্তি ও স্থিতাবস্থা নিয়েও আলোচনা হয়েছে বলে জানান ট্রাম্প। এরপর ভারতের বিভিন্ন সংস্থার সিইওদের সঙ্গে বাণিজ্যিক বৈঠক সাড়েন তিনি। দেশের প্রায় এক ডজন প্রবীণ সিইও তাঁর সঙ্গে সাক্ষাত্ করেছেন। এই বৈঠকে ট্রাম্প ভারতীয় ব্যবসায়ীদের আমেরিকাতে বিনিয়োগের জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। অন্যদিকে, দিল্লির একটি সরকারি স্কুলে পড়ুয়াদের সঙ্গে দেখা করেন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। সেখানে হ্যাপিনেস ক্লাসে যোগ দেন তিনি।