আজ ফের ভারত-চিন সেনার উচ্চপর্যায়ের বৈঠক

391

নয়াদিল্লি: লাদাখ সীমান্তে ভারত-চিনের মধ্যে এখনও উত্তেজনা কমেনি। অথচ গত জুন মাস থেকে সীমান্তে উত্তেজনা কমাতে লাগাতার বৈঠক করা হয়েছে। তবুও পরিস্থিতির বদল ঘটেনি। এমত অবস্থায় পরিস্থিতির বদল ঘটাতে আজ সোমবার ফের বৈঠকে বসতে চলেছে দু’দেশের প্রতিনিধিরা। সূত্রের খবর, দু’দেশের কম্যান্ডারদের উপস্থিতিতে সীমান্তে চিনের দিকে মল্ডোতে হবে বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। উল্লেখ্য, আজকের বৈঠক নিয়ে লাদাখ ইশ্যুতে ভারত ও চিনের সঙ্গে ষষ্ঠ কম্যান্ডার স্তরের বৈঠক। গত পাঁচ নম্বর বৈঠকে কোনও সমাধান সূত্রে না বের হওয়ায় ফের বৈঠকে বসার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সংবাদসংস্থা পিটিআই সূত্রে খবর, চিন তরফে যত দ্রুত সম্ভব সীমান্ত লাগোয়া অঞ্চল থেকে সেনা সরিয়ে নেওয়া হোক, ভারতের প্রতিনিধিরা এমনটাই আজকের বৈঠকে দাবি রাখবেন।

সূত্রের খবর, আজকের বৈঠকে ভারতের তরফে উপস্থিত থাকবেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল হরিন্দর সিং। তিনি লেহ-র ১৪ কর্পসের কম্যান্ডার। অন্যদিকে চিনের তরফে এই বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন দক্ষিণ শিংজিয়াং মিলিটারি রিজিয়নের কম্যান্ডার মেজর জেনারেল লিউ লিনের। সংবাদসংস্থা সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, ভারত ও চিনের মধ্যে কূটনৈতিক স্তরে সেনা সরানো নিয়ে যে আলোচনায় যে সিদ্‌ধঅন্ত গৃহীত হয়েছিল তা বাস্তবায়নের জন্য আজকের বৈঠক। অথাৎ, দু’দেশের তরফে পূর্ব লাদাখ থেকে কীভাবে সেনা সরানো যায় সে বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা আজকের বৈঠকে হতে পারে। কারণ, ভারত লাদাখ সমস্যার নিশ্চিত সমাধান চায়ছে। এ কারণেই এই প্রথম সেনার কোনও বৈঠকে বিদেশমন্ত্রকের যুগ্মসচিব র‍্যাঙ্কের কোনও আধিকারিক যোগ দেওয়া সম্ভাবনা আছে।

- Advertisement -

উল্লেখ্য, ভারত ও চিন দু’দেশের মধ্যে লাদাখের গালওয়ান উপত্যকা, প্যাঙ্গং লেক সংলগ্ন এলাকায় গত মে মাস থেকেই বারবার উত্তেজনা ছড়িয়েছে। গত ১৫ জুন গালওয়ান উপত্যকায় টহলরত ভারতীয় সেনার উপর চিনা সেনার আচমকায় হামলায় ২০ ভারতীয় জওয়ান শহিদ হন। চিনা সেনা বা পিপলস লিবারেশন আর্মিরও অন্তত ৩৫ জওয়ান নিহত হয় বলেও খবর প্রকাশিত হয়।