খাদ্যসুরক্ষায় বাংলাদেশের থেকেও পিছিয়ে ভারত

145
সংগৃহীত

নিউইয়র্ক: খাদ্যসুরক্ষা, লিঙ্গসাম্য থেকে শুরু করে এনভারমেন্টাল পারফরমেন্স ইন্ডেক্স সব ক্ষেত্রেই পিছিয়ে গেল ভারত। অন্যদিকে ভারতকে টেক্কা দিয়ে এগিয়ে গেল অনান্য প্রতিবেশী দেশ। বিশ্ব খাদ্যসুরক্ষা দিবসে ভারতের জন্য এই খবর যথারীতি উদ্বেগের। ২০১৫ সাল থেকে সাসটেনেবল ডেভলপমেন্টে নজর দিয়েছে ভারত। খাদ্যসুরক্ষার মাপকাঠিতে ১৯৩টি দেশের মধ্যে ভারতের স্থান ১১৭। অন্যদিকে গতবছর ভারতের স্থান ছিল ১১৫। তবে এই ফলাফল অত্যন্ত দূর্ভাগ্যজনক। অন্যদিকে এনভারমেন্টাল পারফরমেন্স ইন্ডেক্সে ১৮০টি দেশের মধ্যে ভারত ১৬৮তে স্থান পেয়েছে। আর এই সবক্ষেত্রেই ভারতকে পিছনে ফেলে এগিয়ে গিয়েছে বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা ,নেপাল এবং ভুটান। ভারতের সর্বমোট স্কোর ১০০ এর মধ্যে ৬১.৯৷ খাদ্যসুরক্ষা সুনিশ্চিত করণে ব্যর্থ হওয়ায় দেশে বেড়েই চলেছে অপরাধমূলক কাজ। আর তাই এইভাবে পিছিয়ে গেল ভারত বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞরা।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ‘সবকা সাথ, সবকা বিকাশ’ তত্ত্ব থাকলেও আপাতত তথ্য অনুযায়ী সেটি ব্যর্থ শিক্ষা, অপুষ্টি দূরীকরণ , স্বাস্থ্য থেকে বেকারত্ব নিরাময়ে। বিশ্বের একদা সবচেয়ে বৃহৎ অর্থনীতি আজ তলানিতে। আর তার পাশাপাশি বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা থেকে শুরু করে নেপাল ও ভুটানের মত ছোট অর্থনীতির দেশও ভারতকে ছাপিয়ে গেল। আর সমস্ত পরিসংখ্যান চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে বিশেষজ্ঞদের কপালে।

- Advertisement -