ড্যামেজ কন্ট্রোলে আগামী বছর জোড়া টেস্ট!

দুবাই : ভারত ২। ইংল্যান্ড ১। সিরিজের শেষ ম্যাচ বাতিল। দোসর ধুন্ধুমার বিতর্ক! প্রশ্ন, সিরিজ তুমি কার?

ওল্ড ট্র‌্যাফোর্ডে কোহলি বনাম অ্যান্ডারসন, রুট বনাম বুমরাহর ফাইনাল ফ্রন্টিয়ারের মঞ্চ তৈরি ছিল। শেষ সময়ে বাতিল হয়ে যায় ম্যাঞ্চেস্টার টেস্ট। যার রেশ নিশ্চিতভাবেই সুদূরপ্রসারী হতে চলেছে। কারণ, ম্যাঞ্চেস্টার টেস্ট শেষ মুহূর্তে বাতিল হওয়ার ফলে ২০ মিলিয়ন পাউন্ড ক্ষতি হয়েছে ইসিবির। আর্থিক ক্ষতির ধাক্কা কীভাবে সামাল দেওয়া সম্ভব, এখনও স্পষ্ট নয়।

- Advertisement -

ইসিবির শীর্ষ কর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করতে ২২ অথবা ২৩ সেপ্টেম্বর বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় লন্ডন যাচ্ছেন। ইসিবির সিইও টম হ্যারিসনের সঙ্গে তাঁর বাতিল টেস্ট ম্যাচ নিয়ে আলোচনার কথা। সূত্রের খবর, মহারাজ ব্যক্তিগত কাজে লন্ডন যাওয়ার আগেই ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের তরফে ইসিবিকে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে, ২০২২ সালে ইংল্যান্ডে সাদা বলের সিরিজ খেলার মাঝে টেস্টও খেলবেন বিরাট কোহলিরা। সম্ভবত জোড়া টেস্টের সিরিজ হবে। বোর্ডের এক শীর্ষ কর্তা নাম না লেখার শর্তে আজ বিকেলে উত্তরবঙ্গ সংবাদকে বলেন, আগামী বছর ভারতীয় দল সাদা বলের সিরিজ খেলতে ইংল্যান্ড যাবে। সেই সময় বাতিল হওয়া ম্যাঞ্চেস্টার টেস্ট হবে। সঙ্গে আরও একটি টেস্ট ম্যাচের কথাও আমরা ওদের বলেছি। দুটো টেস্ট হলে ওদের আর্থিক সমস্যা আর থাকবে না।

আগামী বছর টিম ইন্ডিয়ার মিশন ইংল্যান্ডের ছবিটা যেমনই হোক না কেন, তার আগে আজ ক্রিকেট দুনিয়ায় কয়েকটি বিষয় স্পষ্ট হয়েছে। এক, ভারতীয় ক্রিকেটাররা করোনার ভয়ে ম্যাঞ্চেস্টারে মাঠে নামতে চাননি। দুই, শেষ টেস্ট বাতিল হতেই রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি, মহম্মদ সিরাজ, সূর্যকুমার যাদব, জসপ্রীত বুমরাহদের ফ্র‌্যাঞ্চাইজি দলগুলি তাঁদের মরু দেশে হাজির করাতে দেরি করেনি। তিন, কোহলি-রোহিতরা মরু দেশে আজই পৌঁছে যাওয়ার ফলে ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে চলা আইপিএলের দ্বিতীয় পর্বে টিম ইন্ডিয়ার তারকাদের অংশ নেওয়ার ক্ষেত্রে আর কোনও বাধা রইল না। আজ থেকেই আইপিএলের ঢাক বাজতে শুরু করল। চার, ভারতকে চাপে রাখার জন্য দায়িদ মালান, জনি বেয়ারস্টোদের আইপিএল থেকে সরিয়ে বদলার পথে ইসিবি। যদিও বিসিসিআই বিষয়টাকে পাত্তাই দিচ্ছে না।