ডিম খাওয়া নিয়ে বিরাট-বিতর্ক

মুম্বই : স্বাভাবিক প্রশ্ন। প্রত্যাশিত জবাব। আর সেই জবাব ঘিরেই যাবতীয় বিতর্ক!

মুম্বইয়ে গ্র্যান্ড হায়াত হোটেলে কোয়ারান্টিনে থাকার মাঝেই প্রায়ই সোশ্যাল দুনিয়ায় লাইভে আসছেন ভারত অধিনায়ক। ক্রিকেটপ্রেমীদের নানা প্রশ্নের জবাবও দিচ্ছেন। এভাবেই তাঁর ডায়েট নিয়ে জানতে চেয়েছিলেন এক ক্রিকেটপ্রেমী। জবাবে বিরাট তাঁর ডায়েট নিয়ে বলেন, প্রচুর সব্জি, কিছু ডিম, দুই কাপ কফি, ডাল, কুইনোয়া, পালং শাক ও ধোসা তাঁর পছন্দ। তবে তিনি পরিমিত আহার করেন।

- Advertisement -

ভারত অধিনায়কের এমন খাদ্যতালিকার কথা ভারতীয় ক্রিকেটের সঙ্গে জড়িত প্রায় সবার জানা। বছর খানেক আগে ভারতের দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের সময় মেরুদণ্ডের ব্যাথায় ভুগছিলেন তিনি। সেই সময় তাঁর ইউরিক অ্যাসিডও বেড়ে গিয়েছিল। চিকিৎসকদের পরামর্শ নিয়ে কোহলি সেই সময় থেকেই নিজের খাদ্যতালিকা থেকে মাংস বাদ দিয়ে দেন। উপকারও পেয়েছিলেন তিনি। স্ত্রী অনুষ্কা শর্মাও তাঁকে এমন ডায়েটে উৎসাহ দিয়েছিলেন। ফলে অনেকেই ধরে নিয়েছিলেন, বিরাট নিরামিষাশী হয়ে গিয়েছেন।

তাহলে নিরামিষাশী কোহলির ডায়েটে ডিম কেন?

এই প্রশ্ন তুলে সরগরম সোশ্যাল দুনিয়া। বিষয়টি ক্রমশ বাড়াবাড়ির পর্যায়ে যাচ্ছে বুঝে নিয়ে আজ টুইটারে প্রশ্ন তোলা মানুষদের পালটা দিয়েছেন ভারত অধিনায়ক। তিনি নিরামিষাশী হলেও ভেগান নন, কখনও এমন কথা বলেননি বলে জানিয়েছেন তিনি। কোহলি টুইটারে লিখেছেন, কখনও বলিনি আমি ভেগান। নিজেকে নিরামিষাশী হিসেবেই জানি। বড় করে নিঃশ্বাস নিন, আর নিরামিষ খাবার খান (যদি চান)। ভারত অধিনায়কের মন্তব্যের পর কিছু ডিম ও বিরাট বিতর্ক কোন পথে যায়, সেটাই দেখার।