চতুর্থ টেস্টের জন্য প্রস্তুতি শুরু ভারতের

আহমেদাবাদ : পিচ বিতর্ক চলছে। চলবে!

ইতিহাস হয়ে যাওয়া গোলাপি টেস্টের পর বৃহস্পতিবার থেকে শুরু সিরিজের শেষ টেস্টের বাইশ গজের সম্ভাব্য চরিত্র নিযে আগ্রহের শেষ নেই ক্রিকেটমহলে। ইংল্যান্ডের বেন ফোকস আজ সন্ধ্যায় ভার্চুযাল সাংবাদিক সম্মেলনে হাজির হযে ফের পিচ নিয়ে বিতর্ক উসকে দিয়েছেন। শেষ টেস্টেও তিনি ঘূর্ণির ঘেরাটোপের আশঙ্কার কথা শুনিয়েছেন। ভারতীয় ক্রিকেটমহল ঘূর্ণি পিচ নিয়ে এত আলোচনা, সমালোচনার কারণ দেখছে না।

- Advertisement -

টিম ইন্ডিয়া তো নয়ই। বাইরের দুনিয়ায় মোতেরার বাইশ গজ নিযে যতই চর্চা, বিতর্ক চলুক না কেন, বিরাট কোহলির ভারতের সেসব নিযে কোনও আগ্রহ নেই। বরং শেষ টেস্টের লক্ষ্যে আজ থেকেই মোতেরায় অনুশীলনে নেমে পড়ল ভারতীয ক্রিকেট দল। ঐচ্ছিক অনুশীলন হলেও অধিনাযক কোহলি, সহ অধিনাযক আজিঙ্কা রাহানে, ওপেনার রোহিত শর্মা থেকে শুরু করে দলের বেশিরভাগ ক্রিকেটারই আজ হাজির হয়েছিলেন অনুশীলনে। নেটে বেশ কিছুটা সময় ব্যাট-বল চর্চা সেরে হোটেলে ফিরে যান টিম ইন্ডিয়ার সদস্যরা।

দেড় দিনের কিছু বেশি সময়ে শেষ হয়ে গিয়েছে ভারতের মাটিতে দ্বিতীয় দিন-রাতের টেস্ট। সিরিজে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে গিয়েছে ভারত। খেলা পাঁচ দিন গড়ালে আজ হতে পারত ফয়সালার দিন। অনিশ্চতয়ায় ভরা ক্রিকেটের চিত্রনাট্য সবসময় নিয়ম মেনে চলবে, এমনটা হয় না। হওয়ার কথাও নয়। নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে শেষ টেস্টের লক্ষ্যে আজ যখন কোহলিরা অনুশীলন শেষ করলেন, তার কিছু পরই আইসিসির তরফে নয়া টেস্ট র‌্যাংকিং প্রকাশ করা হল। যেখানে ছয় ধাপ এগিযে ৭৪২ পয়েন্ট নিযে ব্যাটসম্যানদের তালিকায় আট নম্বরে উঠে এলেন হিটম্যান। গোলাপি টেস্টে ব্যাট হাতে স্কিল দেখানোর পুরষ্কার পেলেন তিনি। পাশাপাশি মোতেরায় কেরিযারের ৭৭তম টেস্টে ৪০০ উইকেট ক্লাবের সদস্য হওয়ার পর বোলারদের র‌্যাংকিংয়ে চার ধাপ এগিযে তৃতীয় স্থানে চলে এলেন রবিচন্দ্রন অশ্বীন। ভারতীয় অফস্পিনারের র‌্যাংকিং পয়েন্ট এখন ৮২৩। টেস্টে ৪০০ উইকেট পাওয়ার জন্য আজ আইসিসির তরফে অশ্বীনকে অভিনন্দনও জানানো হয়েছে। বোলারদের তালিকার শীর্ষ প্রত্যাশিতভাবেই রয়েছেন অস্ট্রেলিযার প্যাট কামিন্স। আর ব্যাটসম্যানদের তালিকার শীর্ষে নিউজিল্যান্ডের কেন উইলিয়ামসন।

এদিকে, বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়ানশিপ ফাইনালের লক্ষ্যে মজে থাকা টিম ইন্ডিয়াকে ধারাবাহিকভাবে পারফর্ম করে অক্সিজেন জুগিযে চলেছেন রোহিত-অশ্বীন। নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে রোহিতের ব্যাটিং ও অশ্বীনের বোলিং নিয়ে নিয়মিত চর্চা চালিয়ে যাচ্ছেন তাঁদের সতীর্থরা। রাতের দিকে ভারতীয় দলের এক সাপোর্ট স্টাফ মোবাইলে উত্তরবঙ্গ সংবাদকে বলেন, রোহিত-অশ্বীন এখন ভারতীয় দলের অক্সিজেন। সবসময় সবাইকে উৎসাহ দিয়ে চলেছে ওরা। কোহলি-রাহানের কাজও সহজ করে দিয়েছে রোহিতরা। সিরিজে এখনও সুযোগ না পাওয়া মায়াঙ্ক আগরওয়ালের সোশ্যাল দুনিয়ার পোস্ট এই ধারণাকে প্রতিষ্ঠা দিচ্ছে। ক্রিকেটারদের আড্ডার ছবি পোস্ট করে মাফিযা গ্যাং নাম দিয়ে মায়াঙ্ক প্রমাণ করেছেন, কোহলিরা এখন সুখি পরিবার। যে পরিবারের লক্ষ্য আরও সাফল্য।