শীঘ্রই ভ্যাকসিন রপ্তানি করবে ভারত, আশ্বাস জয়শংকরের

192

নয়াদিল্লি: করোনা ভ্যাকসিন রপ্তানির ব্যাপারে ভারত দ্রুত সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানালেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর। মঙ্গলবার তিনি বলেন, কবে থেকে পড়শি সহ অন্যান্য দেশে ভারতের তৈরি কোভিড টিকা পাঠানো হবে, তা কয়েক সপ্তাহের মধ্যে ঠিক করা হবে।

১৬ জানুয়ারি থেকে দেশে শুরু হচ্ছে গণটিকাকরণ। এদিকে, কোভিড ভ্যাকসিনের জন্য ভারতের দিকে তাকিয়ে বসে আছে বাংলাদেশ, নেপালের মতো প্রতিবেশী দেশগুলি। এমনকি ভ্যাকসিন চেয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি লিখেছেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারোও।

- Advertisement -

জয়শঙ্কর এদিন জানান, কোভিড ভ্যাকসিনকে এখনই বাজারে ছাড়া হচ্ছে না। শুধুমাত্র জরুরি ব্যবহারের ভিত্তিতে পড়শি দেশের সরকারকে সীমিত সংখ্যায় টিকা পাঠানো হবে। টিকা রপ্তানির দিনক্ষণ এখনও চূড়ান্ত করা না হলেও, খুব শীঘ্রই সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে বলে তিনি জানিয়েছেন। বিদেশমন্ত্রীর কথায়, আগে দেশে টিকাকরণ প্রক্রিয়া শুরু হোক। তারপর পরিস্থিতি বুঝে প্রতিবেশী দেশে কোভিড প্রতিষেধক পাঠানোর পরিকল্পনা স্পষ্ট করবে কেন্দ্র। তবে কথা মতোই বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে টিকা পৌঁছে দেবে ভারত। বিদেশমন্ত্রক সূত্রে খবর, দেশে টিকাকরণ শুরুর কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই প্রতিবেশী দেশগুলিকে কোভিড ভ্যাকসিন পাঠানো শুরু হতে পারে। বিদেশমন্ত্রকই এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে।

সিরাম ইনস্টিটিউটের কাছে কোভিশিল্ড টিকার তিন কোটি ডোজ চেয়েয়েছে বাংলাদেশ। ২৫ জানুয়ারির মধ্যে বাংলাদেশে টিকা পৌঁছোনোর কথা। নেপালের দাবি ১ কোটি ২০ লক্ষ ডোজ। আর ব্রাজিলের চাহিদার পরিমাণ ২০ লক্ষ। এছাড়া টিকা চেয়েছে ভুটান, মায়ানমার সহ বেশ কয়েকটি দেশ।