লাদাখে আরও এক ডিভিশন সেনা মোতায়েন ভারতের

403

নয়াদিল্লি: গালওয়ান উপত্যকায় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের পর উত্তেজনার পারদ তুঙ্গে। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় লাল ফৌজের সংখ্যা বাড়িয়ে ভারতের ওপর ক্রমশ চাপ সৃষ্টি করছে চিন। এবার ভারতও লাদাখে আরও এক ডিভিশন সেনা মোতায়েন করল।

শুক্রবার লাদাখে আরও এক ডিভিশন সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। এই নিয়ে পূর্ব লাদাখে ভারতের চার ডিভিশন সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। প্রত্যেকটি ডিভিশনে প্রায় ১৫ থেকে ২০ হাজার করে সৈন্য রয়েছে। সূত্রের খবর, উত্তরপ্রদেশ থেকে সরানো এই ডিভিশনটি পূর্ব লাদাখে থাকবে, তাঁদের সঙ্গে আর্টিলারিও লাদাখে পৌঁছেছেন। লাদাখে এতো সেনা মোতায়েন এর আগে কখনও করেনি ভারতীয় সেনা।

- Advertisement -

লাদাখে আরও এক ডিভিশন সেনা মোতায়েন ভারতের| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India

কারাকোরাম পাস থেকে দক্ষিণ লাদাখের চুমুর পর্যন্ত চিনের সঙ্গে লাদাখের ৮৫৬ কিলোমিটার সীমানা রয়েছে। ভারত এলএসির কোনও অশই দুর্বল রাখতে চায়না। এর আগে গত মে মাসে সীমান্তে উত্তেজনা শুরুর পরপরই উত্তরপ্রদেশ এবং হিমাচলপ্রদেশ থেকে দুই ডিভিশন সেনা লাদাখে মোতায়েন করা হয়েছিল।

প্রসঙ্গত, গত ১৫ জুন পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় ভারত-চিন সংঘর্ষ হয়। চিন সেনার সঙ্গে সংঘর্ষে ২০ জন ভারতীয় জওয়ান শহিদ হন। চিনেরও ৪৩ জন সেনার হতাহতের খবর মেলে। যদিও চিন সেনার তরফে সে বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলা হয়নি। এরপরই সেখানে উত্তেজনা চলছে। একের পর এক বৈঠকেও কোনও সুরাহা মেলেনি। গতকাল লাদাখে দাঁড়িয়ে চিনকে কড়া বার্তাও দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাঁর সঙ্গে ছিলেন চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়াত, সেনা প্রধান মনোজ মুকুন্দ নারাভানে। গালওয়ানে সংঘর্ষে শহিদ জওয়ানদের উদ্দেশ্যে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী। পাশাপাশি সংঘর্ষে জখম সেনাদের সঙ্গে তিনি দেখা করেন। প্রধানমন্ত্রীর সফরে ভারতীয় সেনাদের মনোবল অনেকটাই বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে।