লাদাখ সীমান্তে সংঘর্ষ, চিনে থাকা ছেলেকে নিয়ে চিন্তায় পরিবার

312

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: চিন-ভারতীয় সেনা সংঘর্ষের পর থেকে দুই দেশই সেনাবাহিনীর সমাবেশ বাড়িয়ে চলেছে লাদাখ সীমান্তে। এমন পরিস্থিতিতে চিনে থাকা ব্যবসায়ী ছেলের কথা ভেবে চরম উৎকণ্ঠায় দিন কাটাচ্ছেন তাঁর বৃদ্ধ মা বাবা সহ গোটা পরিবার। ছেলে তাঁর পরিবার নিয়ে দ্রুত ঘরে ফিরে আসুক এটাই চাইছে পরিবার।

পূর্ব বর্ধমানের নবীনগরের বাসিন্দা আলহিলাল কর্মসূত্রে চিনে থাকেন। নবীনগরের বাড়িতে থাকেন আলহিলালের বৃদ্ধ বাবা মহম্মদ জয়নাল আবেদিন, মা হালিমা বিবি ও ভাই। জয়নাল আবেদিন অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক। জয়নাল আবেদিন জানান, চিনের সেনজেনে তাঁর টেক্সটাইলের ব্যবসা রয়েছে। সেখানে প্রায় ২০ বছর ধরে তিনি ব্যবসা করছেন। সেনজেনে আলহিলাল তাঁর স্ত্রী নার্গিস পারভীন ও ১৩ বছরের ছেলে আহান শেখকে নিয়ে থাকেন। চিনে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের কারণে জারি হওয়া লকডাউনে টানা চারমাস দোকান বন্ধ ছিল আলহিলালের। তারপর করোনার প্রকোপ কমতেই সব কিছুই ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হতে শুরু করেছিল। কিন্তু, পুরানো ছন্দে সেনজেন ফিরতে না ফিরতেই সীমান্তে দুই দেশের জওয়ানদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।যার পরবর্তী পরিস্থিতি এখনও স্বাভাবিক হয়নি।

- Advertisement -

শনিবার আলহিলালের বাবা জয়নাল আবেদিন বলেন, বারে বারে সেনজেনে ফোন করে ছেলে,বৌমা ও নাতির খোঁজ খবর নিচ্ছি। আমার মতো আলহিলালের মাও চাইছেন, কোনও রকম বিপদ ঘটার আগেই তাঁরা দ্রুত ভারতে ফিরুক।