চিনকে চাপে রাখার কৌশল, আন্দামানে যৌথ নৌমহড়ায় অংশ নেবে ভারত-মার্কিন যুদ্ধ জাহাজ

230
ইউএসএস নিমিৎজ।

উত্তরবঙ্গ সংবাদ ডিজিটাল ডেস্ক: লাদাখে উত্তেজনার মাঝেই যৌথ নৌমহড়ায় অংশ নেবে ভারত ও মার্কিন যুদ্ধ জাহাজ। চলতি সপ্তাহে আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের কাছে সেই নৌমহড়া অনুষ্ঠিত হবে বলে সূত্রের খবর। ভারতীয় যুদ্ধ জাহাজের সঙ্গে যৌথ নৌমহড়ায় অংশ নেবে আমেরিকার নেভি ক্যারিয়ার স্ট্রাইক গ্রুপ। যার নেতৃত্বে রয়েছে ইউএসএস নিমিৎজ।

ইউএসএস থিওডোর রুজভেল্ট।

ইউএসএস নিমিৎজ বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ যুদ্ধ জাহাজ। দক্ষিণ চিন সাগর থেকে মধ্য প্রাচ্যে যাওয়ার পথে নিমিৎজ ওই যৌথ নৌমহড়ায় অংশ নেবে। ওই মহড়ার নাম দেওয়া হয়েছে ‘প্যাসেক্স’। সম্প্রতি দক্ষিণ চিন সাগরে আমেরিকার অন্যতম সেরা যুদ্ধ জাহাজ ইউএসএস রোনাল্ডা রেগান ও ইউএসএস নিমিৎজ একটি মহড়ায় অংশ নিয়েছিল। এরপরই আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের কাছে আমেরিকা ও ভারতীয় যুদ্ধ জাহাজের যৌথ নৌমহড়া যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

- Advertisement -

সূত্রের খবর, চলতি সপ্তাহের শেষ দিকেই আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের কাছে ভারত ও আমেরিকার নৌবাহিনী যৌথ মহড়া শুরু করবে। যদিও এবিষয়ে নৌবাহিনীর তরফে এখনও পর্যন্ত সরকারিভাবে কিছু জানানো হয়নি।

ইউএসএস রোনাল্ড রেগান।

উল্লেখ্য, ভারতের মূল ভূখণ্ড থেকে প্রায় ১২০০ কিমি দূরে রয়েছে আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ। সেখান থেকে প্রায় ৪০০ কিমি দূরে মালাক্কা প্রণালী দিয়ে চিনের বিভিন্ন জাহাজ যাতায়াত করে। অন্যদিকে, দক্ষিণ চিন সাগরে আধিপত্য কায়েম করতে চাইছে চিন। বিষয়টি নিয়ে ক্ষুব্ধ আমেরিকা, ভারত, ভিয়েতনামের মতো দেশ। ভারত ও আমেরিকার যৌথ মহড়া চিনকে চাপে রাখারই কৌশল বলে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

ভারত-আমেরিকার যৌথ নৌমহড়ার পরপরই মালাবার নৌমহড়ায় অংশ নেবে ভারত, আমেরিকা, জাপান, অস্ট্রেলিয়া।