ছড়ায় প্রচার নজর কাড়ছে জলপাইগুড়িতে

153

জলপাইগুড়ি: সম্প্রতি নির্বাচনের দিন ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। আর তারপর থেকেই মিটিং মিছিলের পাশাপাশি লড়াই শুরু হয়েছে শহরের দেওয়ালে দেওয়ালেও। জলপাইগুড়ি বিধানসভায় একে অন্যকে বিঁধতে রীতিমতো ছড়া যুদ্ধ শুরু করেছে শাসক ও বিরোধী।

নির্বাচনি লড়াইয়ে বরাবরই প্রচারের অন্যতম অস্ত্র হল ছড়া। তবে ইদানীং প্রচারের হরেক রাস্তা বের হয়ে যাওয়ায় ছড়ার গুরুত্ব অনেকটাই কমেছে। কমেছে ছড়ার মানও। তবুও ছন্দ মিলিয়ে দেওয়াল লিখনে নিজেদের বক্তব্য তুলে ধরে তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপি পরস্পরকে বিদ্ধ করতে কোনও কসুরই রাখছে না। জলপাইগুড়ি শহরের রায়কতপাড়ার দেওয়ালে ধরা পড়ছে ছড়া যুদ্ধের ছবি সেই ছবিই। তৃণমূলের দেওয়াল লিখনে বলা হয়েছে, ‘প্রতিবাদীরাই দেশদ্রোহী, চোরেরা আজ সাধুর বেশে, শ্রমিক কৃষক মৃত্যু মিছিলে, হতভাগ্য আমার দেশে।’আবার রাজ্যে পরিবর্তনের ইঙ্গিত দিয়ে সেখানেই বিজেপি লিখেছে, ‘সোনার বাংলায় ফুটবে না আর ঘাসফুল, এবার ফুটবে পদ্ম ফুল।’

- Advertisement -

জলপাইগুড়ি শহরের বাসিন্দা ছিলেন রাষ্ট্রীয় পুরস্কার প্রাপ্ত ছড়াকার মোহিত ঘোষ। মোহিতবাবু আজ বেঁচে থাকলে রাজনৈতিক ছড়া পড়ে যে আনন্দ পেতেন তা বলাই যায়।