ভারতের ক্ষোভে তৎপর গেমস আয়োজকরা

নয়াদিল্লি ও টোকিও : ভারতীয় অলিম্পিক কমিটি (আইওসি)-র পত্রবোমা। তাতেই নড়েচড়ে বসলেন টোকিও অলিম্পিকের আয়োজকরা। ভারতীয় অ্যাথলিটদের কোয়ারান্টিন সংক্রান্ত সমস্যা মেটাতে পদক্ষেপ করার বার্তা দিয়েছেন তাঁরা। অন্যদিকে, রবিবার গেমস ভিলেজের বিভিন্ন ছবি প্রকাশ করা হয়েছে।

সমস্যার সূত্রপাত জাপান সরকারের এক নির্দেশিকা ঘিরে। করোনা সংক্রমণের বাড়বাড়ন্ত রয়েছে, এমন ১১ দেশের অ্যাথলিট ও সাপোর্ট স্টাফদের জন্য বিশেষ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বলা হয়েছে, জাপানে পা রাখার আগের ৭ দিনে একবার করে করোনা পরীক্ষা করাতে হবে। জাপানে যাওয়ার পর প্রথম তিনদিন কোনও বিদেশীর সংস্পর্শে যাওয়া যাবে না। এমনকি ভিলেজে সকলের সঙ্গে খাবার খাওয়ার ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞা থাকবে। ফলে গেমস ভিলেজে একপ্রকার কোয়রান্টিনে থাকতে হবে।

- Advertisement -

এই নির্দেশেই চটেছে ভারত। আইওসি সভাপতি নরিন্দর বাত্রার বক্তব্য, অ্যাথলিটরা মাত্র ৫ দিন আগে গেমস ভিলেজে ঢুকবে। তাতে যদি তিন দিন ঘরেই থাকতে হয়, তবে ওরা অনুশীলন করবে কখন! ওরা কী খাবে, কোথায় খাবে স্পষ্ট নয়। ওদের ঘরে খাবারের প্যাকেট পৌঁছানোর ব্যবস্থা করাটাই যথেষ্ট নয়। প্রত্যেক অ্যাথলিটের নিজস্ব ডায়েট আছে। সেই অনুয়ায়ী খাবার দেওয়ার হবে কি না স্পষ্ট নয়। এটা আমাদের অ্যাথলিটদের সঙ্গে বৈষম্যমূলক আচরণ।

ভারতীয় দলের সকল সদস্যকে টিকা দিয়ে পাঠানোর পরও কেন এমন নিয়ম মেনে চলতে হবে, প্রশ্ন তুলেছেন বাত্রা। এই ক্ষোভের কথা চিঠি দিয়ে আয়োজকদের জানিয়েছে আইওসি। জবাবে আয়োজকরা লিখেছেন, তালিকায় থাকা ১১ দেশ সহ সমস্ত দেশের প্রতিনিধিদের স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা নিয়ে আমরা সচেতন। অ্যাথলিটদের সঙ্গে কোনওরকম বৈষম্যমূলক আচরণ না হয় সেই দিকেও আমাদের নজর রয়েছে। দ্রুত এই বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য দেওয়া হবে।