সেচ ব্যবস্থা বেহাল, আষাঢ়ের বৃষ্টিতেই আশার আলো দেখছেন কৃষকরা

139

আলিপুরদুয়ার: আলিপুরদুয়ার সহ উত্তরবঙ্গজুড়ে ভারি বৃষ্টি হচ্ছে। আষাঢ়ের এই ভারি বৃষ্টিতেই খুশি কৃষকরা। জেলার বিভিন্ন জায়গায় কৃষি পুরো নির্ভর করে বৃষ্টিপাতের উপর কারণ সেচ ব্যবস্থা উন্নত নয়। কিছুদিন ধরে লাগাতার বৃষ্টিতে আমন ধানের চাষের ভালো উপকার হচ্ছে। জমিতে জল না আটকানোর জন্য অনেকেরই বীজ রোপণে অসুবিধা হচ্ছিল, সেই সমস্যা মিটল ভারি বর্ষায়। পাশাপাশি লাগাতার বৃষ্টিতে জলাশয়গুলো প্রায় ভরে যাওয়ায় পাট চাষেও সুবিধা হয়েছে। ফলে পাট চাষীদেরও জাঁক দিতে সুবিধা হয়েছে বলে জানাচ্ছে কৃষি দপ্তর।

কৃষি দপ্তর সূত্রে খবর, জেলায় ২০০০ একর জমিতে আমন ধানের বীজ রোপনের কাজ শেষ। চকোয়াখেতির ধান চাষি দীপক রায় জানান, অনেক গ্রামেই সেচের ভালো ব্যবস্থা নেই। যাদের অল্প জমি তাদের বেশি খরচ করে নিজের উদ্যোগে পাম্পের ব্যবস্থা করার ক্ষমতা নেই। লাগাতার বৃষ্টিতে কৃষকদের চিন্তা দূর হল। পাট চাষি সাইফুল মিয়াঁ, বচ্চন দাসরা জানান, পাট চাষ ভালো হয়েছে। তবে, বৃষ্টি কম হওয়ায় পাট পচানো নিয়ে একটা আশঙ্কা দেখা দিয়েছিল। এখন চিন্তা দূর হল।

- Advertisement -

জেলা উপ কৃষি অধিকর্তা হরিশ রায় বলেন, ‘আবহাওয়া অনুযায়ী ধান চাষ এবং পাট চাষে অনেকটা লাভ হবে। সঠিক সময় ভারি বৃষ্টি হচ্ছে।‘