করোনা মহামারী কালে বিশ্বজুড়ে হামলার ছক ISIS-এর

461

উত্তরবঙ্গ সংবাদ: লকডাউনেও গুটিয়ে বসে নেই জঙ্গি সংগঠনগুলি। তারা বিশ্বজুড়ে মহামারী চলাকালীন হামলা চালানোর নীল নকশা তৈরি করছে। জেহাদের নামে নতুন প্রজন্মের মগজধোলাই থেকে জঙ্গি প্রশিক্ষণ, দলে লোক বাড়ানো থেকে হামলার নির্দেশ দেওয়া, সবটাই চলছে অনলাইনে। ভারতীয় সাইবার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা বিশেষজ্ঞদের দাবি, ভিডিও গেমের মাধ্যমে নতুন প্রজন্মের মগজ ধোলাই আর জিহাদের আদর্শ ছড়িয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। কীভাবে সাইবার গোয়েন্দাদের চোখ এড়িয়ে এই কাজ করা যায়, তারও প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। আর এই বিষয়টাই সাইবার সিকিউরিটির দায়িত্বে থাকা সংগঠনগুলিকে ভাবাচ্ছে।সূত্রের খবর, আইসিস এবার পাখির চোখ করেছে ভারতের জম্মু-কাশ্মীরকে।

সম্প্রতি ভারতীয় গোয়েন্দার টেলিগ্রামের কিছু মেসের এনক্রিপ্ট করে। তাতেই দেখা যায় জম্মু-কাশ্মীরে নিরাপত্তা বাহিনীর উপর লোন উলফ হামলার ছক কষছে আইসিস। ফেসবুক, টুইটার, হোয়্যাটঅ্যাপ, টেলিগ্রামে সক্রিয় এই সংগঠনগুলির বেশিরভাগই পাকিস্তানে বসে পরিচালনা করা হয়।

- Advertisement -

ভারতীয় সাইবার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সংগঠনগুলি জানিয়েছে, আইসিস উপমহাদেশ থেকেও জঙ্গি নিয়োগের চেষ্টা চালাচ্ছে। জেহাদের নামে কমবয়সীদের মগজ ধোলাই করার চেষ্টা করছে তারা। কুখ্যাত জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট বা আইসিস অনলাইনে নিয়োগ প্রক্রিয়া চালাচ্ছে। অনলাইনে প্রশিক্ষণের সময় যুবক-যুবতীরা কীভাবে গোয়েন্দাদের চোখে ধুলো দেবে, তাও তাদের শিখিয়ে দেওয়া হচ্ছে।ইসলামিক স্টেট বা আইসিস তাদের ম্যাগাজিন সেই কায়দা-কানুনের কথা ফলাও করে ছেপেছে।

‘দ্য সাপোর্টারস সিকিউরিটি’ নামে আইসিসের সঙ্গে যুক্ত সাইবার সিকিউরিটি ম্যাগাজিনের মে মাসের সংখ্যায় সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যবহারের সময় কেমন সাবধানতা অবলম্বন করলে গোয়েন্দা সংস্থারগুলির চোখে এড়ানো যাবে, তার বিস্তারিত ব্যাখ্যা দেওয়া হয়েছিল। ২৪ পৃষ্ঠার ওই ম্যাগাজিন স্মার্টফোন এবং কম্পিউটার ব্যবহারের সময় সতর্কতা অবলম্বনের দিকটিও ছিল। স্বাভাবিক ভাবেই ভারতীয় গোয়েন্দারা এখন আইসিসের অনলাইন নিয়োগের দিকে নজর রেখেছে।