ইসকন মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন রায়গঞ্জে

280

রায়গঞ্জ: মায়াপুরের ইসকন মন্দিরের তত্ত্বাবধানে রায়গঞ্জ শহরের দেবীনগর কান্তনগরে ইসকন মন্দিরের শাখার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হল। প্রায় চার বিঘা জমির উপর ৫ কোটি টাকা ব্যয়ে কুলিক নদীর বাধের পাশে এই মন্দির গড়ে উঠবে। এদিন মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনে উপস্থিত ছিলেন মায়াপুরের ইসকনের সাধু-সন্তদের পাশাপাশি রায়গঞ্জ পুরসভার কাউন্সিলাররা। ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলার প্রসেনজিৎ সরকার, কাউন্সিলার তপন দাস, কাউন্সিলার চৈতালি ঘোষ সাহা ছিলেন।

মন্দিরের প্রোজেক্ট ম্যানেজার তথা ফিল্ড অফিসার নন্দসূত হরিদাস বলেন, ‘দীর্ঘ ৪০ বছরের পর আজ আমাদের প্রচেষ্টা সফল হতে চলেছে। উপযুক্ত জায়গা না পাওয়ায় এতদিন মন্দির তৈরির কথা ভাবা যায় নি। এখন জমি পাওয়াতে এই মন্দিরের কাজ শুরু হল। উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় ইসকনের কোনও মন্দির নেই। এই জেলায় ইসকনের ভক্ত সংখ্যা প্রায় ৪ হাজার। বহুদিন ধরে মন্দিরের জন্য দাবি জানিয়ে আসছিলেন। মন্দির তৈরির কথা শুনে ভক্তরা আনন্দে নৃত্য করছে, কেউ কীর্তন করছেন।’

- Advertisement -

ইসকনের বৃহত্তর প্রচার বিভাগের কো-রিজিওনাল ডাইরেক্টর বিশ্বজিৎ দাস ব্রহ্মচারী বলেন, ‘উত্তরবঙ্গের শিলিগুড়ি ও মালদা বাদে আর কোথাও ইসকনের মন্দির নেই। প্রায় ৪০ বছরের লাগাতার প্রচেষ্টায় এই টিচিং সেন্টার ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের কাজ আজ শুরু হল। এছাড়াও পার্ক, গেস্ট হাউস, গোশালা, ভক্ত আবাস তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে। এই মন্দিরের তত্ত্বাবধানে বিরাট আকারে রথযাত্রা উৎসব অনুষ্ঠিত হবে।’