গুরুমারা বিদ্যা রোখাই মাহির চ্যালেঞ্জ

মুম্বই : গুরু শিষ্যের ডুয়েল। আক্ষরিক অর্থে ঠিক তাই।

ঋষভ পন্থের আদর্শ মহেন্দ্র সিং ধোনি। দিল্লি নতুন অধিনায়ক বলেও দিয়েছেন মাহিভাইয়ের থেকে শেখা বিদ্যেটা কাজে লাগাতে চান। কাকতালীয়ভাবে শুরুটা আগামীকাল এমএস ধোনির চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধেই! গুরুর সামনেই অধিনায়কত্বের পরীক্ষা।

- Advertisement -

নয়া ইনিংসের সূচনায় চেন্নাই-বধে মজে ঋষভ। নেতৃত্বে আলাদা কিছু করে দেখানোর কথাও শুনিয়ে রেখেছেন। শনিবাসরীয় ডুয়েলে ক্রিকেট দুনিয়াও মুখিয়ে ক্যাপ্টেন ঋষভকে দেখার জন্য। ধোনি ব্রিগেডের চোখ সেখানে গতবারের বিপর্যয় ঝেড়ে ঘুরে দাঁড়ানোয়। শক্তিশালী দিল্লিকে হারিয়ে অক্সিজেন ভরে নিতে বদ্ধপরিকর তিনবারের চ্যাম্পিয়নরা।

আইপিএল ইতিহাসের কড়চা নিয়ে বসলে সুপার কিংসরা কাল ফেভারিট। ২৩ ম্যাচের মধ্যে ১৫টিতেই দিল্লিকে হারিয়েছে। গত আসরে জোড়া ম্যাচের পরাজয়টুকু সরিয়ে রাখলে বরাবরই চেন্নাই শক্ত গাঁট দিল্লির জন্য। কিন্তু দিল্লির ইয়ং ব্রিগেডের উত্থান ছবিটা ক্রমশ বদলে দিচ্ছে। ঋষভদের যে ভয়ডরহীন ক্রিকেট নতুন ইউএসপি রাজধানী এক্সপ্রেসের।

ইয়ং ব্রিগেড, শক্তিশালী বোলিং, দক্ষ একাধিক অলরাউন্ডার- টিম দিল্লির শক্তির আধার। চেন্নাইয়ের মূল শক্তি এবারও অভিজ্ঞতা। মইন আলি, রবীন উথাপ্পা, চেতেশ্বর পূজারা সেই তালিকায় নতুন সংযোজন। আছেন স্যাম কুরান, রুতুরাজ গায়কোয়াড়দের মতো তরুণ তুর্কিও। তবে দিল্লি-বধে ভরসা সেই ধোনি-রায়না-ডুপ্লেসি। প্রশ্ন এখন, বিপক্ষ বোলিংকে অ্যাটাক করার দায়িত্ব সামলাবেন কে? ধোনি-ফ্লেমিংরা উত্তরটা এবার খুঁজে পেয়েছেন কি না, তার কিছুটা আভাস মিলবে কাল।

গতবার টেস্টসুলভ ব্যাটিং ভুগিয়েছে। ১৫০-১৬০ রান তাড়া করতে গিয়ে হিমশিম খেয়েছে ধোনিরা। উইকেট হাতে রেখেও ফিনিশিং লাইন ক্রস করতে পারেননি। রায়না-ব্র‌্যাভোরা সাফল্য না পেলে, যে ছবিটা বদলানো কঠিন। রবীন্দ্র জাদেজাকে ব্যাটিং অর্ডারে কিছুটা উপরের দিকে তুলে আনার মতো কিছু দেখা যেতে পারে। একইভাবে ধোনি দুই ইংল্যান্ড তারকা কুরান-মইনকে কীভাবে ব্যবহার করেন এবার, তাও নির্ণায়ক হতে চলেছে।