দিদি বাংলার সংস্কৃতিকে নষ্ট করছেন, তোপ নাড্ডার

77

সিউড়ি: ‘আমি হিন্দিভাষী হয়েও বাংলার সংস্কৃতি রক্ষা করে চলেছি। কিন্তু দিদি বাংলার মেয়ে হয়েও বাংলার সংস্কৃতিকে নষ্ট করে প্রধানমন্ত্রীকে গালিগালাজ করছেন।’ বীরভূমে প্রচারে এসে সোমবার এভাবেই তৃণমূলকে আক্রমণ করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা। এদিন বীরভূমের সাঁইথিয়া বিধানসভা এলাকায় দলীয় প্রার্থী পিয়া সাহা এবং সিউড়িতে জগন্নাথ চট্টোপাধ্যায়ের সমর্থনে রোড শো এবং জনসভা করেন নাড্ডা। প্রথমে সাঁইথিয়ার কলেজ মোড় থেকে রোড শো শুরু করেন তিনি। শেষ করেন থানার সামনে নেতাজি মূর্তির পাদদেশে। সেখানে গাড়ির উপর দাঁড়িয়ে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমালোচনা করেন। বলেন, ‘রাজ্য থেকে তোলাবাজ সরকারের পতন চাই। দিদিকে নমস্কার করে বিদায় দিন। আর বিজেপিকে স্বাগত জানান।’

এরপরেই সিউড়িতে একটি জনসভা করেন জগন্নাথ চট্টোপাধ্যায়ের সমর্থনে। সেখানে বলেন, ‘দেশের প্রধানমন্ত্রী দিদিকে কত সম্মান দিয়ে সম্বোধন করছেন। কিন্তু দিদি তাঁকে গালিগালাজ করছেন। এটাই কি বাংলার সংস্কৃতি। বাংলার একটা সংস্কৃতি রয়েছে। কিন্তু কংগ্রেস, বামফ্রন্ট আর এখন তৃণমূল সেই সংস্কৃতিকে নষ্ট করছে। আমরা হিন্দিভাষী হয়েও বাংলার সংস্কৃতি রক্ষা করে চলেছি। কিন্তু দিদি প্রধানমন্ত্রীকে গালিগালাজ দিয়ে, কুকথা বলে বাংলার সংস্কৃতিকে নষ্ট করছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘এরাজ্যে এখন তোলাবাজ সরকার চলছে। কয়লা, বালি, পাথর, গোরু পাচারের সরকার চলছে। এই রাজ্যে সব থেকে বেশি নারী ধর্ষণ হয়েছে। এখানে মহিলাদের কোনও সুরক্ষা নেই। একজন মহিলা মুখ্যমন্ত্রী হয়ে মহিলাদের সুরক্ষা নেই বাংলায়। বেকারদের কর্মসংস্থান নেই। শুধু ভাইপো আর দলের নেতারা ফুলেফেঁপে উঠছে। এর জবাব মানুষ দেবে। ২ মে’র পর দিদিকে মানুষ নমস্কার করে বিদায় দেবে। আর বিজেপিকে স্বাগত জানাবে। ভাঁওতা নয়, আমরা দুঃস্থ মানুষদের পাঁচ লক্ষ টাকা করে চিকিৎসা বীমার ব্যবস্থা করব। যে কার্ড নিয়ে মানুষকে সরকারি হোক কিংবা বেসরকারি কোনও হাসপাতাল থেকে ফিরতে হবে না। বিনামূল্যে চিকিৎসা পাবেন।’ সিউড়িতে সভা শেষে নাড্ডা বোলপুরে বুদ্ধিজীবীদের একটি সভায় যোগদান করেন।

- Advertisement -