ঝটিকা সফরে মুর্শিদাবাদে সস্ত্রীক ধনখড়

258

মুর্শিদাবাদ: বুধবার ঝটিকা সফরে মুর্শিদাবাদের নবগ্রামের কিরীটেশ্বরী মন্দির ও লালবাগের হাজারদুয়ারি পরিদর্শনের পর বহরমপুর সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। তিনি প্রথমেই মুর্শিদাবাদের জেলা পরিষদের সভাধিপতি মোশারফ হোসেনের নিরাপত্তারক্ষী প্রত্যাহার নিয়ে সমালোচনা করেন। রাজনৈতিক কারণে নিরাপত্তা প্রত্যাহার প্রজাতন্ত্রের মূলে কুঠারাঘাত বলে তিনি মন্তব্য করেন। রাজ্য সংবিধানের বিধি মোতাবেক কাজ করছে না বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

নিজের সাংসদ জীবনের অভিজ্ঞতা ব্যক্ত করে রানাঘাটের সাংসদ জগন্নাথ সরকারকে শহিদ জওয়ানের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে না দেওয়ার ঘটনার তীব্র নিন্দাও করেন রাজ্যপাল। জনপ্রতিনিধিত্বের অধিকার খর্ব করা হচ্ছে বলে দাবি করেন তিনি। একই সঙ্গে রাজনৈতিক নিরপেক্ষতা জলাঞ্জলি দেওয়া হয়েছে বলে রাজ্য প্রশাসনের কর্মীদের সাংবিধানিক অধিকারের কথা স্মরণ করিয়ে দেন তিনি। তাঁর মতে, ইতিমধ্যেই বেশকিছু প্রশাসনিক আধিকারিকের আচরণ বদলেছে। আগামী দিনে আইন মোতাবেক প্রশাসন না চললে তাঁদের জন্যে খারাপ দিন অপেক্ষা করছে বলে মন্তব্য করেন রাজ্যপাল ধনখড়।

- Advertisement -

রাজ্যের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেন রাজ্যপাল। করোনাকালে কৃষকদের প্রাপ্য ডাইরেক্ট বেনিফিসিয়ারি স্কিমে রাজ্য সরকার মিডিল ম্যান হতে চেয়ে প্রকল্প থেকে রাজ্যের কৃষকদের বঞ্চিত করা হচ্ছে বলে তিনি মন্তব্য করেন। বিশ্ববঙ্গ শিল্প সম্মেলনের খরচ নিয়ে উষ্মাপ্রকাশ করেন তিনি। রাজ্য সরকারের তরফে বিশ্ববঙ্গ শিল্প সম্মেলনের খরচ ও বিনিয়োগ সংক্রান্ত প্রশ্নের চিঠির উত্তর না আসায় অসন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি।

তাঁর দাবি, কিছু জেলার পুলিশ সুপারদের পরিচালনা করছে রাজনৈতিক নেতারা। তাঁদের সতর্ক করেন রাজ্যপাল। তাঁরা আগুন নিয়ে খেলা করছেন বলে মন্তব্য করেন তিনি। একইসঙ্গে মুর্শিদাবাদের জেলাশাসক ও পুলিশ সুপার তাঁর সঙ্গে দেখা করতে না আসায় তিনি উষ্মা প্রকাশ করেন। পশ্চিমবঙ্গের ঐতিহ্য, আতিথেয়তা, কৃষ্টি সংস্কৃতির প্রশংসা করে তিনি রাজনৈতিক সংস্কৃতিও সমানভাবে সুন্দর হোক বলে কামনা করেন তিনি।