কেন্দ্রের কৃষি আইনের প্রতিবাদ জমিয়তের

135

বর্ধমান: কেন্দ্রের কৃষি আইনের প্রতিবাদে পথে নামল রাজ্য জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ। বুধবার সকাল থেকে পূর্ব বর্ধমানের গলসি এলাকায় ২ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করেন সংগঠনের সদস্যরা। পাঞ্জাবি সম্প্রদায়ের কিছু মানুষজনও এই অবরোধ বিক্ষোভে অংশ নেন। দফায় দফায় অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। উপস্থিত ছিলেন জমিয়তের রাজ্য সভাপতি তথা রাজ্যের মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী। অবরোধের জেরে দুর্গাপুর-কলকাতা মুখি দু’দিকে যান চলাচল পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়।

সুশৃঙ্খলভাবে অবরোধ কর্মসূচি করার বার্তা দেন মন্ত্রী। যদিও তাঁর কথায় সাড়া না দিয়ে জাতীয় সড়কে বসে পড়েন আন্দোলনকারীরা। অবরোধ ঘিরে চূড়ান্ত বিশৃঙ্খলার পরিস্থিতি তৈরি হয়। পরে লাঠি হাতে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী। পরে যদিও বেলা ১২টা নাগাদ অবরোধ তুলে নেন আন্দোলনকারীরা।

- Advertisement -

কেন্দ্রের লাগু করা নতুন কৃষি বিলের বিরোধিতায় সরব হয়েছে রাজ্য জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ। সম্প্রতি জমিয়তের রাজ্য সভাপতি তথা রাজ্যের মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী এক সভা থেকে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছিলেন, ‘যদি বিজেপি সরকার কৃষি আইন প্রত্যাহার করে নেয় তো ভালো, নয়তো আগামী ১৩ জানুয়ারি থেকে জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ বৃহত্তর আন্দোলনে নামবে।’

সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘দিল্লির সরকার আইন, সংবিধান কোনও কিছুই না মেনে জোর করে গোটা দেশে কৃষক বিরোধী কৃষি বিল চাপিয়ে দিচ্ছে। তাই আমরাও বেআইনিভাবেই জাতীয় সড়ক অবরোধ করে কৃষিবিলের বিরোধীতায় শামিল হব।’