হাইকোর্টের নির্দেশে চরম বেকায়দায় এই বিজেপি নেতা

214

কলকাতা: হাইকোর্টের নির্দেশে বেকায়দায় পড়লেন বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার। সপ্তাহ খানেক আগে কলকাতা হাইকোর্ট বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদারকে যাতে গ্রেপ্তার না করা হয় সেই নির্দেশ দিয়েছিল। নির্দেশ দিয়েছিলেন বিচারপতি রাজা শেখার মান্থা। গতকাল মামলার শুনানিতে জয়প্রকাশ মজুমদারের তরফে আইনজীবী আরও সময় চেয়েছিলেন বিচারপতি মান্থার কাছে। বিচারপতি সেই জন্য মামলাটি শুনানির জন্য ফের রেখেছিলেন আজ। কিন্তু আজ মামলার শুনানির সময় দেখা যায় জয়প্রকাশ মজুমদারের তরফে যে আইনজীবী সওয়াল করেছিলেন তিনি ব্যাক্তিগত কারণে ভার্চুয়ালি অনুপস্থিত রয়েছেন। এর পরই ক্ষুব্ধ বিচারপতি মামলাটি তালিকা থেকে বাদ দিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন। স্বভাবিকভাবেই এতে বেকায়দায় পড়লেন বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার।

উল্লেখ্য তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে পেট্রোল পাম্প এবং বিজেপির সাংগঠনিক পদ পাইয়ে দেওয়ার নাম করে তিনি প্রায় চার লক্ষ টাকা নিয়েছিলেন বনগাঁ বাগদার বাসিন্দা অরুপরতন রায়ের থেকে। কিন্তু পরবর্তীকালে তিনি সেই আশ্বাস পুরন করেননি। সেই ঘটনায় থানায় এফআইআর করেছিলেন অরুপরতন রায়। সেই এফআইআর খারিজের দাবিতেই কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করেছিলেন জয়প্রকাশবাবু। গত ১২ অগাস্ট বিচারপতি রাজাশেখর মান্থা জয়প্রকাশ মজুমদারকে এক সপ্তাহের জন্য গ্রেপ্তার না করার নির্দেশ দিয়েছিলেন পুলিশকে। সেই সময়সীমা শেষ হচ্ছে আজ। ফলে এখন পুলিশ যদি মনে করে ৪১ এ-তে নোটিশ পাঠিয়ে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারে। গ্রেপ্তারও হতে পারেন জয়প্রকাশ মজুমদার।

- Advertisement -