ভুুপাল, ২০ জুনঃ নিজের বেআইনি কার্যকলাপ ধামাচাপা দিতে এক সাংবাদিককে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল সরকারি আধিকারিকের বিরুদ্ধে। ঘটনাস্থল মধ্যপ্রদেশের সাগর জেলার শাহগড় শহর। পুলিশ জানিয়েছে, বুধবার সকালে কৃষি দফতরের আধিকারিক আমন চৌধুরির বাড়ির বাইরে হিন্দি দৈনিকের সিনিয়র জার্নালিস্ট চক্রেশ জৈনের অর্ধদগ্ধ দেহ উদ্ধার হয়। তাঁর শরীরের ৯০ শতাংশই পুড়ে গিয়েছিল। আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়।

একটি মামলার ব্যাপারে আমন চৌধুরির সঙ্গে চক্রেশের বছর দুয়েক আগে যোগাযোগ হয়। আমনের বেআইনি কার্যকলাপ নিয়ে ওই মামলা হয়। কিছুদিন পরেই ওই মামলার শুনানি ছিল। সেই ব্যাপারেই আমনের বাড়িতে গিয়েছিলেন চক্রেশ। এরপরই আমনের বাড়ির বাইরে থেকে তাঁর আধপোড়া দেহ উদ্ধার হয়। সাংবাদিকের পরিবারের অভিযোগ, স‌ত্যিটা যাতে সামনে না চলে আসে, তার জন্যই চক্রেশকে পুড়িয়ে মারা হয়েছে। অন্যদিকে ওই সরকারি আধিকারিকের দাবি, সকাল আটটা নাগাদ চক্রেশ তাঁর বাড়িতে যান। কথা চলার মাঝেই নিজের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন চক্রেশ। যদিও এই তত্ত্ব মানতে রাজি নয় পুলিশ  পুলিশের এখ শীর্ষ আধিকারিক জানিয়েছেন, সাংবাদিকের পরিবার আমন চৌধুরি ও আরও একজনের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ দায়ের করেছেন। প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, পুড়িয়েই মারা হয়েছে চক্রেশ জৈনকে। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।