উত্তরপ্রদেশে গুলিবিদ্ধ সাংবাদিক

373
প্রতীকী ছবি

গাজিয়াবাদ: আবারও সাংবাদিকের ওপর আক্রমণ নেমে আসল। এবার উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদের বিজয়নগর এলাকার ঘটনা। আক্রান্তের নাম বিক্রিম যোশি। এই ঘটনার একাংশ সিসিটিভিতে ধরা পড়েছে। যে দুষ্কৃতী গুলি চালিয়েছে, তাকে ইতিমধ্যে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার পাঁচ সহযোগীও ধরা পড়েছে। ধৃতরা সকলেই যোশির পরিচিত বলে জানাগেছে।

স্থানীয় সূত্রে খবর, সোমবার রাত সাড়ে ১০ টা নাগাদ দুই মেয়েকে নিয়ে যোশি বাইকে চড়ে আসছিলেন। এমন সময় একদল দুষ্কৃতী তাঁদের ঘিরে ধরে। যোশিকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। তাঁর মাথায় গুলি লাগে। গুরুতর আহত অবস্থায় যোশি স্থানীয় এক বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

- Advertisement -

বিজয় নগর এলাকার এক সিসিটিভির ফুটেজে দেখা যায়, যোশি তাঁর দুই মেয়ের সঙ্গে বাইকে চড়ে আসছিল। আচমকাই বাইক ঘুরিয়ে যোশি উল্টো দিকে যাওয়ার চেষ্টা করলেন। সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে ঘিরে ফেলল কয়েকজন। এরপর দুষ্কৃতীদল বাইকটি ধরে টানাহ্যাঁচড়া করতে লাগল। একই সঙ্গে তাঁরা যোশিকে মারধর করতে লাগল। কিছুক্ষণের মধ্যে যোশি বাইক থেকে পড়ে যায়। তবে, ঠিক কখন গুলি করা হয়েছিল সিসিটিভিতে দেখা যাচ্ছে না। কিন্তু, যোশি মাটিতে পড়ে থাকার পর দুষ্কৃতীরা দৌড়ে পালাচ্ছে দেখা যাচ্ছে। এরপরেই সাংবাদিকের বড় মেয়ে বাবার কাছে দৌড়ে আসে। তখন সে কাঁদছিল। যোশির বড় মেয়ে রাস্তার কয়েকটি গাড়িকে দাঁড় করাতে চেষ্টা করল। এরপর কয়েকজন আহত যোশির দিকে দৌড়ে যায়।

যোশির পরিবার সূত্রে খবর, ভাইঝিকে বিরক্ত করায় কিছুদিন আগে বিক্রম যোশি পুলিশে অভিযোগ করেছিলেন। গাজিয়াবাদ পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, তারাই যোশিকে মারতে চেয়েছিল। যদিও গোটা বিষয়টি তদন্তের পর্যায়ে আছে। উল্লেখ্য, এর আগে নানা সময়ে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে সাংবাদিকের ওপর আক্রমণ নেমে। যার জেরে প্রাণ হারাতে হয়েছে, গৌরি লঙ্কেশ, সুজাত বুখারির মতো প্রখ্যাত সামবাদিকদের। এই আক্রমণ গুলির বেশির ভাগটাই রাজনৈতিক মদতে, আবার কখনও কখনও ব্যক্তিগত ভাবে সাংবাদিকদের ওপর নেমে এসেছে। যার বেশির ভাগ ঘটনায় পুলিশ প্রশাসনের উদাসীনতা লক্ষ্য করা গেছে।