পরিযায়ী শ্রমিকদের ছেড়ে পালাল বাস, ত্রাতা পুলিশ

491

সমীর দাস, কালচিনি: জাতীয় সড়কে পরিযায়ী শ্রমিকদের ছেড়ে পালিয়ে গেল বাস। দার্জিলিং জেলার বিধাননগর থেকে কোচবিহার জেলায় ফেরার পথে মাঝরাতে ৩১সি জাতীয় সড়কের মেন্দাবাড়ি এলাকায় ওই শ্রমিকদের ফেলে পালিয়ে যায় বাসটি। ওই শ্রমিকদের রাতের অন্ধকার থেকে উদ্ধার করে ত্রাতার ভূমিকা পালন করল কালচিনি থানার পুলিশ। পরিযায়ী শ্রমিক দলটিতে মহিলা-শিশু সহ কোচবিহার জেলার মাথাভাঙ্গা, শিতলকুচি এলাকার মোট ৪৯ জন বাসিন্দা ছিলেন।

বিধাননগরে ওই শ্রমিক দলটি ইট ভাটায় কাজ করত। টানা লকডাউনে সর্বস্ব হারিয়ে সোমবার হেঁটে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। শিলিগুড়ির কাছে ফুলবাড়ি এলাকায় পথ আটকায় পুলিশ। সেখানেই তাঁদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে একটি অসমগামী বাসে তুলে দেয় পুলিশ। সেই বাসটি মাঝরাতে মেন্দাবাড়ির মন্থরাম এলাকায় দাঁড়ায়। সেই সময় শৌচকর্মের জন্য পরিবার সহ সকল শ্রমিক দল বাস থেকে নেমে যায়। এই সুযোগে চালক বাস নিয়ে চম্পট দেয় বলে অভিযোগ শ্রমিকদের। ফলে, মহিলা-শিশুদের নিয়ে জাতীয় সড়কের বিপাকে পড়ে পরিযায়ী শ্রমিকদল।

- Advertisement -

ঘটনাস্থলে আসে কালচিনি থানার পুলিশ। তাঁদের সেখান থেকে উদ্ধার করে মেন্দাবাড়ির দক্ষিণ সাতালি গ্ৰামের কৃষক বাজারের কোয়ারান্টিন সেন্টারে নিয়ে আসে পুলিশ। সেখানেই তাঁদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা, রাতের খাবারের ব‍্যবস্থা করেন পুলিশ কর্মীরা। এরপর মঙ্গলবার সকালেও খাবারের ব‍্যবস্থা করে কোচবিহার জেলায় পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়। একই সঙ্গে প্রত্যেক শ্রমিককে মাস্ক ও স‍্যানিটাইজার দেওয়া হয়েছে।

কালচিনি থানার ওসি অভিষেক ভট্টাচার্য বলেন, ‘আমরা কেবল কর্তব্য পালন করেছি। শ্রমিক দলটিতে মহিলা ও শিশু থাকায় তাঁদের নিরাপদ স্থানে নিয়ে যাওয়ায় গুরুত্ব দিয়েছি।’