কালিয়াগঞ্জ, ২৬ নভেম্বরঃ কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা উপনির্বাচনের ভোট গণনা হবে বৃহস্পতিবার। তার আগে বিগত ভোটের হিসেব সামনে রেখে চুলচেরা বিশ্লেষণ শুরু হয়েছে এই আসনের মূল প্রতিপক্ষ দলের অন্দরে। কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা আসনে মোট প্রার্থী ৬ হলেও আসল লড়াই ত্রিমুখী। একদিকে, বাম সমর্থীত কংগ্রেস প্রার্থী। অন্যদিকে, তৃণমূল ও বিজেপি। ২০১৬-তে এই আসনে জয়ী বাম সমর্থীত কংগ্রেস বিধায়ক প্রমথনাথ রায়ের মৃত্যুতে অকাল ভোট হল কালিয়াগঞ্জে। উপনির্বাচন হলেও এই ভোটে মানুষের উৎসাহ ছিল নজরকারা।

জেলা তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তরের তরফে প্রকাশিত তথ্য অনুসারে কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা আসনের উপনির্বাচনে ভোটদান করেছেন ২ লক্ষ ১৮ হাজার ১৬০ জন। গড় ৮১.১১ শতাংশ। এই ভোটদাতার মধ্যে পুরুষ ১ লক্ষ ১২ হাজার ৩৬৭ জন। মহিলা ১ লক্ষ ৫ হাজার ৭৯৩ জন। এবারে কালিয়াগঞ্জে মোট ভোটদাতার সংখ্যা ছিল ২ লক্ষ ৬৮ হাজার ৯৬৯ জন। সোমবার কালিয়াগঞ্জ আসনের ভোটে কোনও তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার অংশ নেননি। উপনির্বাচনের ভোটদানে কালিয়াগঞ্জবাসী উৎসাহ গণতন্ত্রের জন্য সুখবর। কিন্তু বাজিমাৎ করবে কে, তা নিয়ে জল্পনা কল্পনায় এখন মেতে কালিয়াগঞ্জের জনতা।

চলতি বছরে লোকসভা ভোটে এই কালিয়াগঞ্জ বিধানসভায় অপ্রত্যাশিত ফল করেছে বিজেপি। সেই ফল ধরে রেখে এই উপনির্বাচনে কালিয়াগঞ্জ জয়ের স্বপ্ন দেখছে পদ্ম শিবির। লোকসভার বিপর্যয় কাটিয়ে এই উপনির্বাচনে কালিয়াগঞ্জে প্রথম জয়ের সন্ধানে তৃণমূল। অন্যদিকে, বাম-কংগ্রেস জোট নিজেদের আসন ধরে রাখতে মরিয়া। ২০১৬-তে এই আসনে বিরাট ব্যবধানে জয়ী হয়েছিল বাম-কংগ্রেস জোট। কিন্তু লোকসভায় জট জটিলতায় আলাদা লড়াই করা বাম ও কংগ্রেসের ভোট ব্যাংকে প্রবল ধস নেমেছে। শেষ লোকসভার ভোটে এমনি অদলবদলের জেরে এই উপনির্বাচনে কালিয়াগঞ্জের ফলাফল নিয়ে জোরালো চর্চা শুরু হয়েছে।