কড়া নিরাপত্তায় মুম্বই ছাড়লেন কঙ্গনা রানাওয়াত

668

অনলাইন ডেস্ক: নিজের ভাঙা অফিস দেখতে পাঁচদিন আগে মানালি থেকে মুম্বই এসেছিলেন কঙ্গনা রানাওয়াত। তারপর থেকে নানা বিতর্কে জড়িয়েছেন। শিব সেনার সঙ্গে কঙ্গনার সংঘাত এই কদিনে সারা দেশ জেনে গিয়েছে। এরই মাঝে বিজেপির সমর্থন এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক থেকে বিশেষ নিরাপত্তা সেই সংঘাতে নতুন মাত্রা যোগ করেছি। এরই মাঝে মুম্বই ছাড়লেন কঙ্গনা। সোমবার সকালে মুম্বইয়ের বাড়ি থেকে বিমানন্দরের উদ্দেশে রওনা দেন অভিনেত্রী। তাঁকে ঘিরে কার্যত নিরাপত্তার বলয় ছিল।

দীর্ঘ ৬ মাস পর বুধবার মুম্বইয়ে এসেছিলেন কঙ্গনা। তবে নিজের কর্মক্ষেত্র আসার মাত্র ৬ দিন পরেই বাড়ি ফিরে যাচ্ছেন তিনি। অভিনেত্রীর পালি হিলের অফিস ভেঙে ফেলার পরই উদ্ধব ঠাকরের সরকারের সঙ্গে বিবাদ চরমে পৌঁছায় তাঁর। অভিনেত্রী না দসে জানিয়ে দেন, অফিস ভাঙলেও, তাঁর মনোবল ভাঙা সম্ভব নয়। মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করার কারণে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়। মাদক চক্রের সঙ্গে কঙ্গনার যোগ রয়েছে কি না তা জানতে তদন্ত করা হবে, এমন হুশিয়ারিও দেয় মুম্বই পুলিশ।

- Advertisement -

মহারাষ্ট্র সরকারের সঙ্গে তাঁর সংঘাতের আবহের মধ্যে রবিবার রাজ্যপাল ভগৎসিং কোশিয়ারির সঙ্গে দেখা করেন কঙ্গনা রানাওয়াত। দুজনের মধ্যে বেশ কিছুক্ষণ কথা হয়। রাজ্যপালের সঙ্গে বৈঠক সেরে সাংবাদিকদের কাছে ফের রাজ্য সরকারকে ফের একহাত নেন কঙ্গনা। তিনি জানান, মুম্বইয়ে আর তিনি নিরাপদ বোধ করছেন না। কঙ্গনা বলেন, সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে সরব হওয়ার কারণে আমাকে হেনস্তার শিকার হতে হচ্ছে।

কাল অবশ্য তিনি বলেন, মুম্বই আমার কর্মস্থল। আমাকে এখান থেকে সরানো যাবে না। তবে রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার জল্পনায় কিছুটা হলেও জল ঢালার ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছে কঙ্গনার বক্তব্যে। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি রাজনীতিক নই। রাজনীতির সঙ্গে আমার সম্পর্ক নেই। একজন সাধারণ মানুষ হিসাবে শুধু নিজের মতটুকু প্রকাশ করি।

কঙ্গনা রানাওয়াত প্রসঙ্গ থেকে নৌসেনা আধিকারিক মদন শর্মাকে নিগ্রহ এবং বিজেপি, এমনকি জোট শরিকদের সমালোচনায় এতদিন নীরব ছিলেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। রবিবার তিনি বৈদ্যুতিন মাধ্যমে এক বার্তায বিরোধীদের উদ্দেশে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে বলেন, যত রাজনৈতিক ঝড়ই আসুক না কেন, আমি মুখোমুখি হতে তৈরি। রাজনৈতিক ঝড় সামলানোর সঙ্গে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই চলবে।

উদ্ধবের দাবি, ক্ষমতায় আসার পর তাঁর সরকার বহু কাজ করেছে। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে জোট সরকারের পদক্ষেপগুলি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তবে এই সংঘাতের আবহের মধ্যেই এদিন সকালে হঠাৎ করেই মুম্বই ছাড়লেন অভিনেত্রী।