কর্ণাটক উপ-মুখ্যমন্ত্রীর পরিবারের আট সদস্য করোনা পজিটিভ, বড় ছেলের অবস্থা সংকটজনক

296

বেঙ্গালুরু:  কর্ণাটকের উপ মুখ্যমন্ত্রী গোবিন্দ কার্জলের পরিবারের আট সদস্য করোনা আক্রান্ত। অন্যদিকে কর্ণাটক বিধানসভার বৈঠকের পরে সে রাজ্যের একাধিক মন্ত্রী-বিধায়ক করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

দেশের জাতীয় সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর, কর্ণাটকের উপ মুখমন্ত্রী গোবিন্দ কার্জলের ছেলে গোপাল কার্জল করোনা আক্রান্ত হয়ে ইতিমধ্যে ২৪ দিন ভেন্টিলেশনে কাটানোর পর ফের চিকিৎসার জন্য  বেঙ্গালুরু থেকে বিমান চেপে হায়দরাবাদ পৌঁছলেন।

- Advertisement -

এক দীর্ঘ টুইট পোস্টে উপ মুখ্যমন্ত্রী গোবিন্দ কার্জল লিখেছেন, শারীরিক নজরদারির কারণে রাজ্যের বাগালকোট ও কালাবুরাগি এলাকার বন্যা পরিস্থিতিতে তিনি বিশেষ ভুমিকা পালন করতে পারেন নি। একই সঙ্গে উপ মুখ্যমন্ত্রী ইঙ্গিত দিয়েছেন, তাঁর ছেলের অবস্থা ভালো নয়। হয়তো তাঁর ফুসফুস প্রতিস্থাপন হতে পারে।

https://twitter.com/GovindKarjol/status/1317813393076625409?s=20

টুইটে উপ মুখ্যমন্ত্রী গোবিন্দ কার্জল বলেছেন,  ‘করোনা আক্রান্ত হওয়ার কারণে আমার পুত্র ডক্টর গোপাল কার্জল গত ২৩ দিন ভেন্টিলেশনে ছিল। করোনা মুক্ত হওয়ার পর সম্প্রতি আমার স্ত্রী হাসপাতাল থেকে ফিরেছে। আমি নিজেও ১৯ দিন হাসপাতালে থাকার পর করোনা মুক্ত হয়ে ঘরে ফিরেছি।  সর্বোপরি আমার পরিবারের আটজন করোনা আক্রান হন’।

এদিকে বন্যায় কর্ণাটকের দুই জেলার ডুবে গিয়েছে। কার্জল বাগালকোটের মুধহলের বিধায়ক এবং বাগালকোট ও কালাবুরাগির দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী। গোবিন্দ কার্জলের বড় ছেলে  ৪৩ বছর বয়সী ডক্টর গোপাল কার্জল ২০১৮ সালে নাগাথান বিধানসভা নির্বাচনে ভোটে লড়েন। যদিও নির্বাচনে তিনি পরাজিত হন।