নিজের পারফরমেন্সে নিজেই অবাক ত্যাগি

দুবাই : এভাবেও ফিরে আসা যায়। এভাবেও ম্যাচ জেতা যায়! অঘটন দুনিয়ায় আজও ঘটে। কিন্তু তা বলে এভাবে?

গত রাতে রাজস্থান রয়্যালস বনাম পাঞ্জাব কিংসের ম্যাচ যত গড়িয়েছে, ততই একপেশে মনে হয়েছিল। লোকেশ রাহুলের দলের জয় সময়ে অপেক্ষা বলে মনে হচ্ছিল। অথচ, ম্যাচের ফল বলছে, রাজস্থান জিতেছে ২ রানে। শেষ ওভারে প্রয়োজন ছিল ৪ রান। পাঞ্জাব কিংসের হাতে ছিল ৮ উইকেট। বল হাতে রানআপে যখন সঞ্জু স্যামসনের দলের ২০ বছরের পেসার কার্তিক ত্যাগি দৌড় শুরু করেছিলেন, তখনও কেউ ভাবেনি পাঞ্জাব হারতে পারে। অথচ ত্যাগির স্বপ্নের শেষ ওভার অসম্ভবকে সম্ভব করেছে।

- Advertisement -

পাঞ্জাব শিবিরের হতাশা, গ্লানি নিয়ে অবশ্য রাজস্থানের কোনও মাথাব্যাথা নেই। বরং রুদ্ধশ্বাস জয়ের পর রাজস্থানের নয়া তারকা ত্যাগিকে নিয়ে উচ্ছ্বাস সর্বত্র। উত্তরপ্রদেশের ২০ বছরের ত্যাগি নিজেই নিজের পারফরমেন্সে অবাক। দলকে জেতানোর পর তিনি তিনি সম্প্রচারকারী চ্যানেলে হাজির হয়ে বলেন, টি২০ ক্রিকেট ভারি মজার। খুব দ্রুত ম্যাচের রং বদলে যায়। এতদিন অনেকের কাছে একথা শুনেছি। তাই নিজের উপর বিশ্বাস ছিলই। এমন অবাক করার মতো ঘটনার সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে আমি গর্বিত।

ত্যাগিকে নিয়ে আলোচনার প্রমাণ মিলিছে আজ সোশ্যাল দুনিয়ায়। যেখানে জসপ্রীত বুমরাহ, কুমার সাঙ্গাকারা, ডেল স্টেইনরা ত্যাগিকে নিয়ে আবেগ গোপন করেননি। বুমরাহ বলেন, দুর্দান্ত ওভার কার্তিক ত্যাগি। কঠিন পরিস্থিতিতে চাপ সামলে দলকে জেতানো বিরাট ব্যাপার। নজরকাড়া পারফরমেন্স। একইভাবে স্টেইন বলেন, পরে বল করে ম্যাচ জেতানোর ক্ষেত্রে কার্তিকের পারফরমেন্স সেরা তকমার খুব কাছে থাকবে। ওকে অভিনন্দন।