হাসপাতাল চত্বরে মোবাইল টাওয়ার বসানোকে ঘিরে কাটমানির অভিযোগ

133

রায়গঞ্জ: রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল চত্বরে দিন কয়েক আগে বেসরকারি সংস্থার একটি মোবাইল টাওয়ার বসানোকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। যদিও মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, হাসপাতলে টাওয়ার বসানোর দাবি ছিল বহুদিন আগের। একটি বেসরকারি সংস্থা এ বিষয়ে আগে থেকেই প্রস্তাব দিয়েছিল। সেই মোতাবেক সংশ্লিষ্ট সংস্থাকে অনুমতি দেওয়া হয়েছে। তবে, বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির বক্তব্য এর পিছনে তৃণমূলের প্রভাবশালীদের হাত রয়েছে।

রায়গঞ্জের বিধায়ক তথা জেলা কংগ্রেসের সভাপতি মোহিত সেনগুপ্ত বলেন, ‘এর পিছনে রয়েছে কাটমানি। তৃণমূলের প্রভাবশালী নেতারা কাটমানির বিনিময়ে সংশ্লিষ্ট সংস্থাকে মেডিকেল কলেজ চত্বরে মোবাইল টাওয়ার বসানোর অনুমতি দিয়েছে বলে আমাদের সন্দেহ।‘

- Advertisement -

সিপিএমের জেলা সম্পাদক অপূর্ব পাল বলেন, ‘আমরা এ বিষয়ে আন্দোলনে নামব।‘

বিজেপি জেলা সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ী বলেন, ‘জেলা প্রশাসন ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কাটমানি খাওয়ার জন্যই সরকারি সংস্থা বিএসএনএলের বদলে একটি বেসরকারি সংস্থাকে হাসপাতালে মোবাইল টাওয়ার বসানোর অনুমতি দিয়েছে।‘

হাসপাতালে রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান তথা বিধায়ক অমল আচার্য জানান, বিরোধীরা রাজনৈতিক মাটি শক্ত করতে ভিত্তিহীন অভিযোগ তুলছে। সরকারি নিয়ম মেনেই হাসপাতাল চত্বরে মোবাইল টাওয়ার বসানোর কাজ হয়েছে।

রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যক্ষ প্রিয়ঙ্কর রায় বলেন, ‘মেডিকেল কলেজ ক্যাম্পাসে মোবাইল নেটওয়ার্ক থাকে না, সমস্যায় পড়তে হয় চিকিৎসক, নার্স স্বাস্থ্যকর্মীদের।‘