সেলফি নিতে ব্যস্ত মা, তলিয়ে গেল শিশু

1134

কেরল: করোনাকালে যে ভয়ের বাতাবরণের সৃষ্টি হয়েছে, লকডাউনের পর অনেকেই স্বস্তির কিনারা খোঁজবার চেষ্টা করছেন। ঠিক সেই কারণেই ছুটির দিনে আড়াই বছরের সন্তানকে নিয়ে সমুদ্রতটে ঘুরতে গিয়েছিলেন মা। এতদিন পর উত্তাল সমুদ্রের অপরূপ শোভা দেখে নিজের সন্তানের সঙ্গে সেলফিতে মত্ত হয়ে ওঠেন মা। ঠিক এমনই সময় সমুদ্রের ঢেউ এসে ধাক্কা মারায় মায়ের হাত থেকে ছিটকে যায় শিশুটি। এরপর থেকে আর তাঁর কোনও খোঁজ মেলেনি। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে কেরালার আলাপ্পুঝা সমুদ্রতটে (বিচ)।

জানা গিয়েছে, আড়াই বছরের শিশুটির নাম আদিকৃষ্ণ। পুলিশ সূত্রে খবর, পালাক্কাডের দম্পতি লক্ষণ ও অনিতামৌলি তাঁদের দুই সন্তানকে নিয়ে কেরালায় একটি বিয়েবাড়িতে এসেছিলেন। সেখান থেকেই তাঁদের এক আত্মীয়ের সঙ্গে তাঁরা সমুদ্রতটে বেড়াতে আসেন। রবিবার দুপুরে প্রথমে যে বিচে তাঁরা যায় তখন সমুদ্র খুব উত্তাল থাকায় সমুদ্রের ধারে কাউকেই যেতে দেওয়া হচ্ছিল না।

- Advertisement -

স্বভাবতই সমুদ্রে নামার ইচ্ছে পূরণ না হওয়ায় সেখান থেকে তাঁরা চলে আসেন আলাপ্পুঝায়। এরপর শিশুটির মা তাঁর অন্য দুই সন্তানের সঙ্গে সেলফি তুলতে যায়। হঠাৎ করেই একটি বড় ঢেউ আসে। আর তারপরই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে। যদিও আত্মীয়ের সাহায্যে বড় দুটি বাচ্চাকে কোনরকমে বাঁচানো গেলেও, মায়ের হাতে ফোন থাকায় আড়াই বছরের শিশুটিকে আর রক্ষা করতে পারেননি। আচমকাই হাত ফসকে ভেসে যায় ওই শিশুটি।

অন্যদিকে সূত্রের খবর, রবিবার রাত পর্যন্ত শিশুটির কোনও খোঁজ মেলেনি। এরপর পুলিশ আসলে শিশুটির যে আত্মীয় ওই পরিবারটিকে সমুদ্রতটে নিয়ে গিয়েছিল তাঁর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। নিষেধ থাকা সত্ত্বেও কেন তাঁরা ঝুঁকি নিয়ে নেমেছিলেন সেই বিষয়েও জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করা হয়েছে।