গাছের ডাল ভেঙে কুমারগ্রাম-বারবিশা রাজ্য সড়ক অবরুদ্ধ, সমস্যায় সাধারণ মানুষ

242

কুমারগ্রাম: গাছের ডাল ভেঙে সোমবার অবরুদ্ধ হয়ে পড়ল কুমারগ্রাম-বারবিশা রাজ্য সড়ক। সোমবার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ায় কুমারগ্রামের পাগলারহাটে। গুরুত্বপূর্ণ পথে বেশকিছু সময়ের জন্য ব্যাহত হয় যান চলাচল। শুধু তাই নয়, ঘটনার জেরে তাঁর ছিঁড়ে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় বিস্তীর্ণ এলাকার বিদ্যুৎ সরবরাহ।

স্থানীয়রা জানান, এদিন সকালে বিশালাকার গাছের একটি বড় ডাল রাস্তায় ভেঙে পড়ে। তবে ওই সময় পথচারী এবং যানবাহন কম থাকায় বড় কোনো দুর্ঘটনা ঘটেনি। স্থানীয় বাসিন্দা অরবিন্দ দাস বলেন, ‘দুর্ঘটনা এড়াতে অন্তত বছরে একবার রাস্তার পাশে থাকা গাছগুলির পরীক্ষা করানো দরকার৷ দুর্বল গাছগুলি চিহ্নিত করে আগাম ব্যবস্থা গ্রহণের পদ্ধতি চালু না করা হলে এমন ঘটনায় যে কোনো দিন বড়সড় বিপদ ঘটতে পারে। তাই সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কর্তাদের আগাম সতর্কতামূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিৎ।’ পাগলারহাটের বাসিন্দা তরুণকুমার দাস বলেন, ‘গাছের মোটা ডাল ভেঙে পড়ায় কুমারগ্রাম বারবিশা রাজ্য সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সংকোশ চা বাগানগামী যাত্রীবাহি বাসগুলি পাগলারহাট থেকেই আলিপুরদুয়ারে ফিরে যায়। একইভাবে আলিপুদুয়ারগামী বাস কুমারগ্রামে ফিরে আসে। এতে চরম সমস্যা পড়েন নিত্যযাত্রীরা।

- Advertisement -

ঘটনার পর দীর্ঘক্ষণ কেটে গেলেও গাছ কেটে সরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে কোনোরকম প্রশাসনিক উদ্যোগ নজরে আসেনি। এইনিয়ে রীতিমতো ক্ষোভ প্রকাশ করেন রাস্তায় আটকে পড়া পথচারীদের অনেকেই। এই বিষয়ে কুমারগ্রাম গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান তিমির দাস বলেন, বিষয়টি বিডিওকে জানিয়েছি। তাঁর নির্দেশ মেনে বন প্রশাসন এবং পূর্ত দপ্তরের আধিকারিকদের খবর দেওয়া হয়েছে। আশা করছি, রাজ্য সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক রাখতে তাঁরা দ্রুত পদক্ষেপ করবেন। এই বিষয়ে ভল্কা রেঞ্জের চ্যাংমারি বিট অফিস সূত্রে জানা গিয়েছে, দ্রুত ওই ভেঙে পড়া গাছ রাজ্য সড়ক থেকে সরিয়ে দেওয়া হবে।