বিজেপির পরিবর্তন রথযাত্রা ঘিরে কুশমণ্ডি-হরিরামপুরে উন্মাদনা তুঙ্গে

109

কুশমণ্ডি ও হরিরামপুর: বিজেপির পরিবর্তন রথযাত্রা ঘিরে কুশমণ্ডি ও হরিরামপুরে বিজেপি কর্মীদের উন্মাদনা তুঙ্গে পৌঁছলো। ব্যান্ড,  কাঁশর, ঢোল বাজিয়ে রথ যাত্রা কুশমণ্ডি পৌছতেই আনন্দে মেতে উঠলেন বিজেপির কর্মীরা। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা নাগাদ উত্তর দিনাজপুর জেলার ফতেপুর থেকে বিজেপির পরিবর্তন যাত্রা রথ কুশমণ্ডি অভিমুখে রওনা দেয়। কোচবিহার থেকে ১৫ দিন আগে শুরু হওয়া ওই রথ আনতে বিজেপি কর্মীরা সকাল থেকেই ফতেপুর পৌঁছে যান। বেশকিছু টেবিল সাজানো হয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শা সহ বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের ছবি দিয়ে। রথের উপরে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের রাজ্য সহ-সভাপতি জিতেন প্রামানিক, বিজেপির জেলা সভাপতি বিনয় কুমার বর্মন, রাজ্য কমিটির সদস্য নীলাঞ্জন রায়। এছাড়াও জেলার ও রাজ্যের বেশ কয়েকজন বিজেপি নেতা।

এদিন চৌরাস্তায় স্বল্পসময়ের পথসভায় তৃণমূলকে তীব্র আক্রমণ করেন বিজেপি নেতৃত্ব। আগামী বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যে বিজেপি ক্ষমতায় দখল করবে বলে কর্মীদের উজ্জীবিত করেন বক্তারা। কুশমণ্ডি চৌরাস্তা থেকে রথ আবার ফিরে যায় ফতেপুর হয়ে হরিরামপুর অভিমুখে। রথযাত্রা ও বিজেপির পথসভার কারণে বুনিয়াদপুর কালিয়াগঞ্জ ১০ নম্বর রাজ্য সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায় রথ যাত্রার যানজটে। যানজট ছাড়াতে রাস্তায় নামতে হয় কুশমণ্ডি থানার আইসি অমিত পাল সহ সমস্ত অফিসারদের। এক ঘণ্টার মধ্যেই আবার রথ ফিরে যায় ফতেপুর থেকে উষাহরণ,  দেহাবন্দ, সামপুর, মহেন্দ্র গ্রাম হয়ে হরিরামপুর ব্লকে। হরিরামপুর বিধানসভার বিজেপি কর্মীরা উৎসাহের সাথে ওই রথ নিয়ে পরিক্রমা করেন হরিরামপুর ব্লকে।

- Advertisement -

এদিনের বিজেপির পরিবর্তন যাত্রা নিয়ে কটাক্ষ করেছেন তৃণমূলের কুশমণ্ডি ব্লক সভাপতি রেখা রায়। তিনি বলেন, ‘রথের নামে প্রহসন তাঁরা করতে পারে সেই দল বিজেপি ছাড়া অন্য কোন দল হতে পারে না।’