নয়াদিল্লি, ৩ নভেম্বরঃ ভারতের একযোগে আত্মঘাতী জঙ্গি হামলার ছক কষছে পাকিস্তানের দুই জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-তৈবা ও জইশ-ই-মহম্মদ। শীতের সময় এই হামলার ছক কষা হয়েছে বলে গোয়েন্দাদের তরফে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককে সতর্কবার্তা পাঠানো হয়েছে। গোয়েন্দারা জানতে পেরেছেন, জাঁকিয়ে শীত পড়লেই ফের কাশ্মীর সহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তে হামলার চালাতে পারে লস্কর ও জইশ। রিপোর্ট অনুযায়ী, জইশের নেতারা বাহওয়ালপুরের হেড কোয়ার্টার থেকে ভারতে জঙ্গিদের অনুপ্রবেশ করানোর চেষ্টা শুরু করেছে। শীতের সময় বরফ পড়ায় কাশ্মীর সীমান্ত দিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশ একপ্রকার অসম্ভব হয়ে যায়। তাই, আগামী দু’সপ্তাহের মধ্যেই জঙ্গিদের ভারতে ঢোকানোর ছক কষেছে জইশ। বাহওয়ালপুর হেড কোয়ার্টারে প্রশিক্ষিত জঙ্গিদের নিয়ে ইতিমধ্যেই হামলার ছক কষে ফেলা হয়েছে।

জম্মু ও কাশ্মীরকে দ্বিখণ্ডিত করে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করার পর কেন্দ্র জানিয়েছিল, এই সিদ্ধান্তে উপত্যকায় আরও বেশি উন্নয়ন হবে। এছাড়া সন্ত্রাসবাদকেও নির্মূল করা সম্ভব হবে বলে দাবি করেছিল কেন্দ্র। ভারতকে ‘শিক্ষা’ হামলা চালানো হবে বলে গোয়েন্দা সূত্রে খবর। ৫ অগাস্ট জম্মু ও কাশ্মীরে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি হওয়ার পর থেকে তেমন বড়ো কোনো জঙ্গি হামলা হয়নি। কিন্তু জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখ নতুন কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসাবে আত্মপ্রকাশ করার দিনই কুলগামে জঙ্গি হামলায় মৃত্যু হয় পাঁচ বাঙালি শ্রমিকের। তাই নতুন করে জঙ্গি হামলা আটকানোই এখন চ্যালেঞ্জ কেন্দ্রের কাছে।