প্যাংগংয়ের ফিঙ্গার-৪ এলাকা থেকে সরছে চিনা ফৌজ, উপগ্রহ চিত্রে মিলল প্রমাণ

303

অনলাইন ডেস্ক: ভারত-চিন সীমান্তের বিতর্কিত ফিঙ্গার-৪ এলাকায় চিন সেনার উপস্থিতি ক্রমশ কমছে। ১০ জুলাইয়ের উপগ্রহ চিত্রে এমনই দেখা গিয়েছে। তবে সেখানে চিনা সেনার বেশ কয়েকটি তাঁবু রয়ে গিয়েছে। অর্থাৎ, ভারত ও চিনের মধ্যে কূটনৈতিক ও কমান্ডার স্তরে আলোচনা চললেও ভারতের জমি থেকে সম্পূর্ণভাবে সরে যায়নি চিনা বাহিনী।

তবে ফিঙ্গার-৪ থেকে ১০ কিলোমিটার পূর্বে প্যাংগং লেকে এখনও চিনা জলযান ঘোরাফেরা করছে বলে দেখা গিয়েছে। তবে সংঘর্ষস্থল গালওয়ান উপত্যকা থেকে সেনা সরিয়ে নিয়েছে চিন। সাম্প্রতিক উপগ্রহ চিত্রে আরও দেখা গিয়েছে, এলএসি’র ডি-ফ্যাক্টো বর্ডার এলাকায় রয়েছে লালফৌজ। লাদাখ গালওয়ান উপত্যকা, হটস্প্রিংস, গোগরা এবং প্যাংগংয়ের ফিঙার রিজিয়ন- এই চারটি জায়গা থেকে দুদেশের বাহিনী সরানোর কথা রয়েছে।

- Advertisement -

প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, নয়াদিল্লির কড়া পদক্ষেপ ও আন্তর্জাতিক নানা মঞ্চের চাপে কিছুটা পিছু হটেছে চিন। জুন মাসে তোলা উপগ্রহ চিত্রে প্যাংগংয়ের ফিঙ্গার ৪ এবং ফিঙ্গার ৫ এর মাঝে মান্দারিন লিপি ও চিনের মানচিত্র আঁকা দৃশ্য নজরে আসে। দৈর্ঘ্য তা প্রায় ৮১ মিটার ও প্রস্থে ২৫ মিটার। সেইসময় দেখা যায়, চিনা বাহিনী দুই ফিঙ্গার পয়েন্টের মধ্যবর্তী এলাকায় বেশ কয়েকটি অস্থায়ী ছাউনি গড়ে তুলেছে।

তবে বরাবরই ভারত যথেষ্ঠ তৎপর ছিল। ফিঙ্গার ১ থেকে ফিঙ্গার ৮ পর্যন্ত নিয়মিত টহল দিয়েছে ভারতীয় সেনা। প্রসঙ্গত, লাদাখে ভারত-চিন সীমান্তে গত প্রায় তিনমাস ধরে উত্তেজনা চলছে। গত ১৫ জুন রাতে পূর্ব লাদাখে চিনা সেনার সঙ্গে সংঘর্ষে কুড়ি জন ভারতীয় জওয়ান শহিদ হয়েছেন। পাশাপাশি ৪৩ জন চিনা সেনার হতাহতের খবর পাওয়া গিয়েছে। যদিও চিন এখনও তা স্বীকার করেনি। তবে একজন চিনা কমান্ডিং অফিসারের মৃত্যু হয়েছে বলে মেনে নিয়েছে চিন।

এই ঘটনার পর থেকেই ভারত ও চিনের মধ্যে বহুবার আলোচনা হয়েছে। ওই ঘটনার পর থেকে সীমান্তে প্রচুর সেনা মোতায়েন করেছে চিন। পাল্টা ভারতও সেনা মোতায়েন করেছে তবে সীমান্তে উত্তেজনা এখনও রয়েই গিয়েছে। সম্প্রতি পূর্ব লাদাখে শান্তি বজায় রাখতে ভারতের দাবি মেনে গালওয়ান থেকে সেনা সরিয়ে নিয়েছে চিন।

কিন্তু তাদের এই আপাত পিছু হটা বড় কোনও সংঘাতের প্রস্তুতি কি না, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে ভারতের। এই পরিস্থিতিতে ফিঙ্গার-৪ এলাকায় চিন সেনার উপস্থিতি কমার বিষয়টি নিঃসন্দেহে তাৎপর্যপূর্ণ। পাশাপাশি ফিঙ্গার ১ এবং ফিঙ্গার ২ পর্যন্ত চিনা বাহিনীর অগ্রসর হওয়ার প্রমাণ মেলেনি উপগ্রহ চিত্রে।