কাপ জিতে প্যালেস্তাইনের পাশে বাঙালি হামজা

লন্ডন : প্রথমবার এফএ কাপ জিতে ইতিহাসে লেস্টার সিটি। ম্যাচ শেষে ইজরায়েলের আক্রমণে বিদ্ধস্ত প্যালেস্তাইনের পাশে দাঁড়ালেন লেস্টারের মিডফিল্ডার হামজা চৌধুরি।

শনিবার রাতে ফাইনালে পরিবর্ত হিসেবে শেষদিকে মাঠে আসেন বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত হামজা। দলের জয়ে তেমন অবদান না থাকলেও ম্যাচ শেষে সবার নজর কেড়ে নিলেন। এদিন লেস্টারের জয়ের পর হামজা ও তাঁর সতীর্থ ফরাসী ওয়েসলি ফোফানা প্যালেস্তাইনের পতাকা হাতে নিয়ে গোটা ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে ঘুরলেন। এমনকি তিনি জয়ের পদক সংগ্রহ করেন প্যালেস্তাইনের পতাকা গায়ে জড়িয়ে। তাঁর এই কাজের প্রশংসা করেছেন ইংলিশ রক ব্যান্ড পিঙ্ক ফ্লয়েডের কিংবদন্তি গিটারিস্ট তথা ভোকালিস্ট রজার ওয়াটার্স। হামজাদের স্টেডিয়াম প্রদক্ষিণ সংক্রান্ত একটি পোস্ট রিটুইট করে তিনি লেখেন, হামজা, তুমি আমার কাছে নায়ক। ফক্সেরা (লেস্টারের ডাকনাম) এগিয়ে যাও। শনিবার প্যালেস্তাইনের সমর্থনে একবার হাঁটু গেড়ে বস। ভালবাসা নিও। হামজার এই পদক্ষেপকে সমর্থন জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রাক্তন ক্রিকেটার শাহরিয়র নফিসও।

- Advertisement -

এখনও পর্যন্ত হামজাদের এই কাজ নিয়ে কোনও আপত্তি বা সমস্যার কথা জানায়নি লেস্টার বা এফএ কর্তৃপক্ষ। যদিও আর্সেনালের মহম্মদ এলনেনির ভাগ্য এত ভালো না। প্যালেস্তাইনের পাশে দাঁড়িয়ে টুইট করেন এই মিশরিও মিডফিল্ডার। তা ভালো চোখে দেখেনি দলের স্পন্সর ইতালিয় কফি গ্রুপ লাভাজ্জে। একইসঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়েছেন দলের ইহুদি সমর্থকরাও। এই পরিস্থিতিতে এক ক্লাব কর্তা বলেছেন, ক্লাবের অন্যান্য কর্মীর মতো ফুটবলারদেরও ব্যক্তিগত মত প্রকাশের স্বাধীনতা আছে। তবে আমরা বিষয়টি নিয়ে মোর (মহম্মদ এলনেনি) সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি তাঁর পোস্টের সার্বিক প্রভাব বুঝতে পেরেছেন। ক্লাব হিসেবে আমরা সব ধরণের অসাম্যের বিপক্ষে। এর আগে মহম্মদ সালাহ, রিয়াদ মাহরেজ, আসরাফ হাকিমি, ইসলাম স্লিমানির মতো তারকারা প্যালেস্তাইনের পাশে দাঁড়িয়েছেন।