দলের খেলায় উন্নতি দেখছেন মেসি

বুয়েনেস এয়ার্স : বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন পর্বে উরুগুয়েকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে জয়ে ফিরল আর্জেন্টিনা। দলের খেলায় খুশি লিওনেন মেসি।

ভারতীয় সময় সোমবার ভোরে চাপ নিয়েই ঘরের মাঠে নামে আর্জেন্টিনা। শেষ ম্যাচে তুলনায় দুর্বল প্যারাগুয়ের রক্ষণ ভাঙতে পারেননি মেসিরা। এদিন অবশ্য ৩৮ মিনিটে দলকে এগিয়ে দিলেন আর্জেন্টাইন মহাতারকা নিজেই। বক্সের কিছুটা বাইরে থেকে সতীর্থ নিকোলাস গঞ্জালেজের উদ্দ্যেশ্যে লম্বা বল বাড়িয়েছিলেন। নিকোলাস তা ধরতে না পারলেও উরুগুয়ের গোলরক্ষক ফার্নান্দো মুসলেরার মনযোগ কেড়ে নেওয়ার কাজটা ভালোভাবেই করেছিলেন। ফলে গোলের ঠিক সামনে বলটি যখন মাটি স্পর্শ করছে, গোলরক্ষক তখন অন্য দিকে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। বিনা বাঁধায় জালে জড়িয়ে যায় বলটি। দক্ষিণ আমেরিকানদের মধ্যে প্রথম ৮০ আন্তর্জাতিক গোলের মাইলস্টোনে পৌঁছালেন মেসি।

- Advertisement -

৩-০ স্কোর দেখে একপেশে ম্যাচ মনে হলেও এদিন বহুবার আর্জেন্টিনার রক্ষণের পরীক্ষা নিয়েছেন লুইস সুয়ারেজ, এডিনসন কাভানিরা। কিন্তু গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্টিনেজ বারবার দুর্গ রক্ষা করেছেন। সতীর্থের প্রশংসা করে মেসি বলেন, ডেবু মার্টিনেজ দুর্দান্ত। প্রতিবার প্রতিপক্ষের আক্রমণের জবাব দিয়েছে। আমাদের দলে বিশ্বের অন্যতম সেরা গোলকিপার রয়েছে। দলের খেলা নিয়ে মেসির বক্তব্য, দুর্দান্ত একটা ম্যাচ খেললাম। দিন দিন আমাদের খেলার উন্নতি হচ্ছে। আমরা বল ধরে খেলছি। আজ একটা কঠিন ম্যাচ ছিল। জিততেই হত। সবকিছু আমাদের হিসেব অনুয়ায়ীই হয়েছে। প্রতিপক্ষ চাপ দিলেও প্রথম গোলের পর পরিস্থিতি বদলে যায় বলে মনে করছেন মেসি।

এদিন প্রথমার্ধেই ব্যবধান বাড়ান রড্রিগো ডে পল। দ্বিতীয়ার্ধে বিপক্ষের কফিনে শেষ পেরেকটি পুঁতে দেন লওতারো মার্টিনেজ। ছাত্রদের পারফরমেন্সে উচ্ছ্বসিত আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি। তিনি বলেন, আজ আমরা ভালো খেলেছি। প্যারাগুয়ের বিরুদ্ধে বিচ্ছিন্নভাবে এমন পারফরমেন্স দিয়েছি। ম্যাচে প্রতিআক্রমণের সময় শক্ত থাকতে হয়। আজ আমরা সেটা পেরেছি। দল এভাবে খেললে পারফরমেন্স ভালো হবেই।