বাড়িতে চিতাবাঘের উৎপাত, আতঙ্কে করিমুল

251

শুভদীপ শর্মা, ক্রান্তি: প্রতিদিনই বাড়ছে চিতাবাঘের আতঙ্ক। চিতাবাঘের আতঙ্কে রাতের ঘুম উধাও পদ্মশ্রী করিমুল হকের।
জানা গিয়েছে, শনিবার দুপুরে  করিমুল সাহেবের বাড়ির উঠোন থেকে একটি ছাগল নিয়ে চম্পট দেয় চিতাবাঘ। শেষমেষ বাড়ির পাশের চা বাগান থেকে মৃত ছাগল উদ্ধার হয়।

জানা গিয়েছে, শনিবার দুপুরে রাজাডাঙা গ্রাম পঞ্চায়েতের ধলাবাড়ি এলাকায় পদ্মশ্রী করিমুল সাহেব জানান, প্রতিদিনই এলাকায় চিতাবাঘ দেখা যাচ্ছে। এলাকায় বহু শিশু রয়েছে। যে কোনও সময় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। করিমুল সাহেবের বাড়ির সঙ্গেই বাস তাঁর পিসতুতো দাদা জাকির মহম্মদের পরিবারের।

- Advertisement -

এদিন দুপুরে জাকিরবাবুর স্ত্রী সকিনা খাতুন কুয়োর পারে যখন কাপড় ধুচ্ছিলেন, সেইসময় চিতাবাঘটি উঠোনে থাকা ছাগল নিয়ে চম্পট দেয়। আতঙ্কে চিৎকার জুড়ে দেন সাকিনা। তাঁর চিৎকারে এলাকাবাসী জড়ো হলে তিনি সবাইকে বিষয়টি জানান। সকলে চিতাবাঘ তাড়াতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন।

ঘটনাক্রমে সেখানে ছিলেন পরিবেশকর্মী অনির্বাণ মজুমদার। তিনি জনান, এলাকাবাসী উত্তেজিত হয়ে বাঘটিকে মারতে উদ্যত হয়। করিমুলবাবু ও তিনি এলাকাবাসীদের বোঝান। করিমুলবাবু জানান, আশেপাশে প্রচুর চা বাগান আছে। সেখান থেকে প্রতিদিন চিতাবাঘ আসছে। আজও এমন ঘটনা ঘটে। বনদপ্তরের দ্রুত খাঁচা পেতে বাঘটিকে ধরা উচিত। বনদপ্তরের আপালচাঁদ রেঞ্জের কাঠামবাড়ি বিটের বিট অফিসার রাজেশ ভুমিচ জানান, এলাকাবাসী জানালে সেখানে খাঁচা পাতা হবে।