তথ্য সুরক্ষা নিয়ে হোয়াটসঅ্যাপকে চিঠি কেন্দ্রের

242

নয়াদিল্লি: ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস হওয়ায় ভারতীয়দের উদ্বেগ চরমে ওঠায় নড়েচড়ে বসল মোদি সরকার। এ ব্যাপারে মূল অভিযোগ ফেসবুকের মালিকানাধীন হোয়াটসঅ্যাপের বিরুদ্ধে। ব্যক্তিগত তথ্যের সুরক্ষা নিয়ে হোয়াটসঅ্যাপকে চিঠি দিয়েছে কেন্দ্রীয় ইলেক্ট্রনিক্স এবং তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রক। চিঠিতে কেন্দ্রীয় সরকার বলেছে, ভারতীয় গ্রাহকদের জন্য হোয়াটসঅ্যাপের প্রাইভেসি পলিসিতে কোনও পরিবর্তন করা যাবে না। যদি কোনও পরিবর্তন আনা হয়ে থাকে তাহলে তা প্রত্যাহার করে নিতে হবে। ভারতের সংসদে যখন ডেটা প্রোটেকশন বিল আনার তোড়জোড় চলছে, ঠিক তখন হোয়াটসঅ্যাপ কেন প্রাইভেসি পলিসিতে পরিবর্তন আনছে তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে কেন্দ্র।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও ভারতের জন্য দুরকম প্রাইভেসি পলিসি থাকা নিয়ে আপত্তি তুলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রীয় সরকার যে ভারতীয়দের স্বার্থের সুরক্ষায় বদ্ধপরিকর সেই বার্তাও হোয়াটসঅ্যাপ কর্তপক্ষকে দেওয়া হয়েছে। গোপনীয়তা লঙ্ঘন হওয়ার আশঙ্কায় বহু গ্রাহক ইতিমধ্যে হোয়াটসঅ্যাপের বিকল্প হিসেবে সিগন্যাল ও টেলিগ্রামকে বেছে নিতেও শুরু করেছে। হোয়াটসঅ্যাপের তরফে প্রথমে জানানো হয়েছিল, ৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে প্রাইভেসি পলিসির পরিবর্তনগুলি মেনে নিতে হবে। তা না করলে গ্রাহকদের অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়ে যাবে। এ নিয়ে শোরগোল শুরু হওয়ায় গোপনীয়তা নীতির পরিবর্তনের বিষয়টি আপাতত স্থগিত রেখেছে হোয়াটসঅ্যাপ।

- Advertisement -