রেফারিং নিয়ে ম্যাচের মাঝে সরব মেসি

বার্সেলোনা : ইচ্ছাকৃতভাবে কার্ড দেখাতে চাইছেন রেফারি!

সোমবার রাতে রিয়াল ভালাডোলিড ম্যাচের বিরতিতে ডাগআউটে এসে এমনটাই অভিযোগ করলেন বার্সেলোনার অধিনায়ক লিওনেল মেসি। ম্যাচে অবশ্য বার্সার চোখে চোখ রেখে লড়ল ভালাডোলিড। ৯০ মিনিটে ওসমানে ডেম্বেলের একমাত্র গোলে ম্যাচ জেতে কাতালান ক্লাবটি।

- Advertisement -

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে স্পেনের প্রাক্তন রেফারি এডুয়ার্ডো গঞ্জালেস দাবি করেন, দেশের রেফারিদের ৯০ শতাংশ রিয়াল মাদ্রিদের সমর্থক, বাকি দশ শতাংশ বার্সার। সোমবার রাতে রেফারি সান্তিয়াগো লাত্রের আচরণে হয়তো সেটাই মনে হয়েছে মেসির। প্রথমার্ধের খেলা শেষে ডাগআউটে এসে বিষয়টি নিয়ে মুখ খোলেন তিনি। ক্লাবকর্তা কার্লেস নাভালকে সামনে পেয়ে তিনি বলেন, এই রেফারি আমাকে হলুদ কার্ড দেখাতে চাইছে!

চলতি সপ্তাহের শেষে এল ক্লাসিকো। অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ নিজেদের ফর্ম হারানোয় রিয়াল মাদ্রিদের পাশাপাশি বার্সেলোনাও লিগ জেতার দৌড়ে প্রবলভাবে রয়েছে। ফলে এই ক্লাসিকোর সঙ্গে খেতাব জয়ে অঙ্কও জড়িয়ে কিন্তু ভালাডোলিড ম্যাচে একটা হলুদ কার্ড দেখলেই ক্লাসিকো থেকে ছিটকে যেতেন মেসি। একই পরিস্থিতি ছিল বার্সার মিডফিল্ডার ফ্র‌্যাঙ্কি ডে জংয়েও। সেই বিষয়টি মাথায় রেখেই রেফারি নিয়ে মেসি এমন কথা বলেন বলে মনে করা হচ্ছে। তবে ম্যাচ শেষে এই নিয়ে মুখ খোলেননি তিনি।

অবশ্য শেষপর্যন্ত হলুদ কার্ড না দেখে এবং তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়লেন মেসিরা। এদিন মাঠে নামার আগেই ব্যাকফুটে ছিল ভালাডোলিড। করোনার জন্য তাঁদের ১২ জন ফুটবলার আইসোলেশনে। বাকিদের নিয়ে লড়াই করল তারা। শুরুতে কেনান কোদ্রোর হেড পোস্টে লাগে। প্রথমার্ধে বার্সার বক্সে জর্ডি আলবার হাতে বল লাগলে পেনাল্টির আবেদন জানান ভালাডোলিড ফুটবলাররা। কিন্তু ভিএআর দেখে সেই আবেদন উড়িয়ে দেন রেফারি।

৭৯ মিনিটে ডেম্বেলেকে পিছন থেকে ট্যাকেল করে লাল কার্ড দেখেন ভালাডোলিডের অস্কার প্লানো। এরপর আর সেভাবে লড়তে পারেনি তারা। নির্ধারিত সময়ে শেষ মিনিটে রোনাল্ড আর্জুনোর পাস থেকে গোল করে বার্সার তিন পয়েন্ট নিশ্চিত করেন ডেম্বেলে।

এদিন জিতে ২৯ ম্যাচে ৬৫ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে উঠে এল বার্সা। সমান ম্যাচ খেলে এক পয়েন্ট এগিয়ে শীর্ষে অ্যাটলেটিকো। ৬৩ পয়েন্ট নিয়ে তিনে রিয়াল। ফলে শনিবার রাতে এল ক্লাসিকো জিতে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দিকে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে দুপক্ষের কাছেই।