বন সহায়ক পদে নিয়োগ বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ বনবস্তিবাসীদের

218

গয়েরকাটা: বন সহায়ক পদে নিয়োগ বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভে শামিল বনবস্তিবাসীরা। মঙ্গলবার বনবিভাগের জলপাইগুড়ি জেলার মোরাঘাট রেঞ্জ অফিসে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। গত ১৬ ডিসেম্বর বনবস্তিবাসীদের ১০ দিনের মধ্যে বন সহায়ক নিয়োগের বিষয়টি সহ অন্যান্য দাবি পূরণের ব্যাপারে পদক্ষেপ করার আশ্বাস দিয়েছিলেন জলপাইগুড়ি জেলার ডিএফও। যদিও এ বিষয়ে বন দপ্তরের তরফে এখনও কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

বন সহায়ক পদে নিয়োগের ক্ষেত্রে বনবস্তিবাসীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। এই সরকারি ঘোষণা সত্ত্বেও বস্তিবাসীদের বঞ্চিত করে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ। এই নিয়োগকে তাঁরা অবৈধ আখ্যা দিয়ে এবং নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিল করার দাবিতে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন রেঞ্জ ও বিট অফিস ঘেরাও করে বিক্ষোভে শামিল হয়েছেন বস্তিবাসীরা। অভিযোগ, তাঁদের দাবিকে কোনওভাবে আমল না দেওয়ায় এদিন দুপুরে ফের একবার জলপাইগুড়ি বনবিভাগের মোরাঘাট রেঞ্জ অফিসে বনবস্তির যুবকরা ব্যাপক বিক্ষোভ দেখান। আগাম সতর্কতা হিসেবে গেটে তালা লাগানো ছিল। বিক্ষোভকারীরা ভেতরে ঢুকতে চাইলে তাতে বাধা দেয় পুলিশ। গেটের বাইরে দাঁড়িয়েই বন দপ্তরের বিরুদ্ধে স্লোগান তুলতে থাকেন বিক্ষোভকারীরা। কিছুক্ষণ পরেই তাঁরা পুলিশ এবং বনরক্ষীদের উপস্থিতিতেই গেট ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করেন এবং অফিস কর্মীদের বাইরে বের করে ঘরে তালা ঝুলিয়ে দেন।

- Advertisement -

এরপরই ঘটনাস্থলে পৌঁছোন বানারহাট থানার আইসি সমীর দেওসা। এ বিষয়ে ডিএফও এবং এডিএফও এদিন বৈঠকে বসবেন বলে আশ্বাস দেওয়া হয়। বিক্ষোভকারীদের মধ্যে রবি রাভা বলেন, ‘বন সহায়ক নিয়োগ নিয়ে প্রশাসন বনবস্তিবাসীদের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। তাই আমাদের বিক্ষোভ চলছে ও চলবে।’

এ বিষয়ে মোরাঘাট রেঞ্জের রেঞ্জ অফিসার রাজ কুমার পাল বলেন, ‘পুরো ঘটনাটি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। তাদের নির্দেশ মত পরবর্তী পদক্ষেপ স্থির করা হবে।’