স্ত্রীর স্বীকৃতি পেতে নাবালক প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধর্নায় বসল প্রেমিকা

396

হরিশ্চন্দ্রপুর: অপরিচিত নম্বরে ফোনের সূত্র ধরেই পরিচয়। যা একসময় বন্ধুত্ব থেকে ভালোবাসার সম্পর্কে পরিণত হয়। দীর্ঘ দেড় বছরের সম্পর্কের সূত্র ধরেই গোপনে বিয়েও সারেন তারা। যদিও বর্তমানে প্রেমিকাকে স্ত্রীর স্বীকৃতি দিতে অস্বীকার করে প্রেমিক। ঘটনায় নাবালক প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধর্নায় বসল প্রেমিকা। ঘটনাটি হরিশ্চন্দ্রপুর-১ নম্বর ব্লকের বরুই গ্রাম পঞ্চায়েতের গিধিনপুকুর গ্রামের।

অভিযোগ, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে একাধিকবার সহবাসের পাশাপাশি মিঠাপাকড় গ্রামের বাসিন্দা প্রেমিকার সঙ্গে গোপনে বিয়েও সেরেছিল গিধিনপুকুর গ্রামের বাসিন্দা প্রেমিক। বিষয়টি প্রেমিকের বাড়ির সদস্যদের গোচরে থাকলেও বর্তমানে সেই সম্পর্ক মানতে নারাজ প্রেমিক সহ পরিবারের লোকজন। যদিও প্রেমিকের মায়ের দাবি তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল না। বিয়ে হয়েছে দাবি করলেও ওই যুবতী কোনও প্রমাণ দেখাতে পারছে না। ঘটনা প্রসঙ্গে যুবতীর দাবি, বিয়ে হয়েছে কিন্তু মৌলবি এখন বিয়ের কাগজপত্র দিতে অস্বীকার করছেন। অন্যদিকে, নাবালকের মায়ের আরও দাবি, মাস দু’য়েক আগে তার ছেলেকে অপহরণ করে বাড়িতে আটকে রেখেছিল ওই যুবতি সহ তার পরিবারের সদস্যরা। পরে পুলিশ ওই বাড়ি থেকে ছেলেকে উদ্ধার করে।

- Advertisement -

হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার প্রেক্ষিতে কোনও অভিযোগ জমা পড়েনি। তবে সমস্ত ঘটনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।