ম্য্যাকবুক থেকে বিতর্কিত কিবোর্ড সরিয়ে নিচ্ছে অ্যাপল। ২০১৫ সালে অ্যাপল নতুন কি-প্রযুক্তি এনেছিল যেখানে বাটারফ্লাই মেকানিজমের ব্যবহার ছিল। ধীরে ধীরে অ্যাপলের সব ল্যাপটপে এই প্রযুক্তি জায়গা করে নেয়। অ্যাপল তখন বলেছিল, এটি একটি উন্নততর প্রযুক্তি। এর ফলে কি-এর আকার ছোট হবে এবং আওয়াজও কম হবে। সামগ্রিকভাবে ল্যাপটপ পাতলা হবে। কিন্তু কিছুদিন পর থেকেই ল্যাপটপের কি ভেঙে যাওয়ার অভিযোগ আসতে থাকে। অনেক ক্রেতা জানান, ধুলো জমলেও টাইপ করতে অসুবিধা হচ্ছে। অথবা, একটু জোরে কি চাপলে পরপর একই অক্ষর অনেকবার টাইপ হয়ে যাচ্ছে। অতএব নতুন কি-বোর্ড ব্যবহারের পরিকল্পনা অ্যাপলের। এই বছরে ম্যাকবুক এয়ারের নতুন মডেলে প্রথম এই কি-বোর্ড ব্যবহার করা হবে, আগামী বছর ব্যবহার করা হবে ম্যাকবুক প্রো-তে। অ্যাপল এর আগে অনেকবার কি-বোর্ডের সমস্যা মেটানোর চেষ্টা করেছে। বারবার তাদের মনে হয়েছে, সমস্যা মিটে যাবে। কিন্তু না মেটায় নতুন কি-বোর্ড আনার উদ্যোগ।