নিশীথের সমর্থনে রোড শো’য়ে মহাগুরু

95

উত্তরবঙ্গ ব্যুরো: বিজেপির প্রচারে মহাগুরু মিঠুন চক্রবর্তী। এদিন কোচবিহারের একাধিক এলাকায় রোড শো করেন তিনি। তিনি দিনহাটায় নিশীথ প্রামাণিক, নাটাবাড়ি ও তুফানগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের দুই প্রার্থী মিহির গোস্বামী ও মালতি রাভা রায়ের সমর্থনে রোড শো করেন।

দিনহাটায় তৃণমূলকে একহাত নেন মিঠুন চক্রবর্তী। তিনি জানান, ১০ বছর আগে যে সরকার ক্ষমতায় এসেছিল তখন পরিবর্তন হয়নি। আসল পরিবর্তন এখন হবে। রাজ্যে বিজেপি সরকার ক্ষমতায় এলে বিদ্যুতের দাম কমবে, মহিলারা বিনা পয়সায় গাড়িতে যাতায়াত করতে পারবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন মিঠুন। মহিলাদের পড়াশোনা শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সবটাই নিঃশুল্ক হবে বলে জানান তিনি। মিঠুনের দাবি, যতটুকু করতে পারবেন, ততটুকু বলবেন। তিনি ভোটারদের কোনও ললিপপ দেবেন না। তিন চান সবটাই তাঁর হাত দিয়ে হোক। এদিকে এই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে জল্পনা দেখা দিয়েছে তাহলে মিঠুন চক্রবর্তী কি বিজেপি সরকার ক্ষমতায় এলে মুখ্যমন্ত্রী হতে চলেছেন?

- Advertisement -

তার বিরুদ্ধে তোলা অভিযোগ উড়িয়ে মিঠুন জানান, অনেকেই বলেন যে তিনি সুবিধাবাদী। কিন্তু তিনি সুবিধাবাদী নন। তাতে নির্বাচনে দাঁড়াতে বলা হলেও তিনি দাঁড়াননি। মিঠুনের তোপ, এখন অনেকে ভাবছেন এখন সন্ত্রাস করে পার পেয়ে যাবেন। তাঁর হুঁশিয়ারি সন্ত্রাস করে পালিয়ে গিয়ে চাঁদে গিয়ে লুকোলেও সেখান থেকে টেনে আনা হবে। বাম আমলকে খোঁচা দিয়ে মিটুন জানান, দীর্ঘ ৩৪ বছরে কেন্দ্রের বিরোধিতা করা হয়েছে। গত ১০ বছরে তৃণমূল ও কেন্দ্রের বিরোধিতা করছে। তাই এবার একটা সুযোগ এসেছে। কেন্দ্রে বিজেপি সরকার, রাজ্যে বিজেপি সরকার হবে এবং ৬ মাসের মধ্যে বাংলার উন্নয়ন হবে।

এদিন নাটাবাড়ি ও তুফানগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের দুই প্রার্থী মিহির গোস্বামী ও মালতি রাভা রায়ের সমর্থনে তুফানগঞ্জ শহরে রোড শো করলেন মহাগুরু মিঠুন চক্রবর্তী। এদিন দুপুর ১২.৪০ মিনিট নাগাদ মিঠুন চক্রবর্তীর রোড শো শুরু হওয়ার কথা রইলেও, তুফানগঞ্জের বিবেকানন্দ উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠের হেলিপ্যাডে তার হেলিকাপ্টার নামে বেলা একটা নাগাদ। এরপর হুড খোলা গাড়িতে দুই প্রার্থীকে সঙ্গে নিয়ে রোড শো শুরু করেন তিনি। রামহরি মোড় থেকে তুফানগঞ্জ মহাবিদ্যালয় পর্যন্ত মিঠুন চক্রবর্তীর রোড শো হওয়ার কথা রইলেও, থানা মোড় অবধি তার রোড শো চলে। মিঠুন চক্রবর্তীর রোড শো কাটছাঁটের ব্যাপারে বিজেপির জেলা সাধারণ সম্পাদক সঞ্জয় চক্রবর্তী জানান, এদিন মিঠুন চক্রবর্তীর রোড শো দেখার বিপুল সংখ্যক লোকের সমাগম হয়েছিল।

এদিন দুপুরে মাদারিহাট বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত গয়েরকাটায় বিজেপি প্রার্থী মনোজ টিগ্গার হয়ে প্রচার করেন মিঠুন সভায় ১০ মিনিটের বক্তব্যে বিজেপি ক্ষমতায় আসলে সরকার গঠন হওয়ার পর তারা কি কি করতে চলেছেন তা তুলে ধরেন। চা শ্রমিকদের দৈনিক মজুরি বাড়িয়ে ৩৫০ টাকা করা, রাজ্যের বেহাল স্বাস্থ্য ব্যাবস্থা ফিরিয়ে প্রতিটি জেলা হাসপাতালে জেলারেল বেডকে শীততাপ নিয়ন্ত্রিত করা, আয়ুস্মান ভারত প্রকল্প রাজ্যে লাগু করা, বিদ্যুৎ বিল হ্রাস, কৃষকদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে কৃষক সন্মান নিধি প্রকল্পের ১৮ হাজার টাকা দেওয়া সহ রাজ্যে শিল্প আনার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি। মিঠুনের গলায় জনপ্রিয় সিনেমার ডায়ালগ শুনেও আপ্লুত হন উপস্থিত জনতা। যদিও এদিন তৃনমূল সরকারের সমালোচনা করলেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় সম্পর্কে একটি বাক্যও খরচ করতে দেখা নি তাঁকে।