লকডাউনের মেয়াদ ৩১ জুলাই পর্যন্ত বাড়াল মহারাষ্ট্র

ফাইল ছবি

অনলাইন ডেস্ক: ৩১ জুলাই অবধি লকডাউন রাজ্যে লকডাউন ঘোষণা করল মহারাষ্ট্র সরকার। রাজ্যে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ ঠেকাতেই এই পদক্ষেপ নিল উদ্ধব ঠাকরে সরকার।

দেশে করোনা পরিস্থিতি ক্রমেই ভয়াবহ হচ্ছে। লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণের সংখ্যা। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। কেন্দ্রীয় সরকার ধীরে ধীরে সবকিছু স্বাভাবিক করার প্রক্রিয়া শুরু করেছে। ইতিমধ্যেই আনলক পর্ব শুরু হয়েছে। এই আবহে পশ্চিমবঙ্গ, ঝাড়খন্ডে পর লকডাউনের মেয়াদ ৩১ জুলাই অবধি বাড়াল মহারাষ্ট্র।

- Advertisement -

গত বুধবার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৩১ জুলাই অবধি লকডাউন ঘোষণা করেন। বুধবার নবান্নে সর্বদল বৈঠকের পর সাংবাদিক বৈঠকে তিনি জানান, লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধি নিয়ে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল বিভিন্ন মতামত জানিয়েছে। আরও ছাড়-সহ রাজ‍্যে লকডাউন বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার।

তারপর শুক্রবার ঝাড়খন্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেন শুক্রবার টুইটে জানান, বর্তমান পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে রাজ্য সরকার ৩১ জুলাই পর্যন্ত লকডাউন ঘোষণা করছে। গতকাল মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী এন বীরেন সিংহ ১৫ জুলাই অবধি লকডাউন ঘোষণা করেন।

প্রসঙ্গত, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, করোনা আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে মহারাষ্ট্রই সবার ওপরে রয়েছে। এখনও পর্যন্ত সেখানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ৬৪ হাজার ৬২৬। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৮৬ হাজার ৫৭৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ৭ হাজার ৪২৯ জনের। অর্থাৎ সেখানে এখনও করোনা অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ৭০ হাজার ৬২২।

এদিকে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আবারও প্রায় ২০ হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হলেন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের আজকের হিসেব অনুযায়ী, দেশে এ পর্যন্ত মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫ লক্ষ ৪৮ হাজার ৩১৮। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১৯ হাজার ৪৫৯ জন।

দেশে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন মোট ১৬ হাজার ৪৭৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৩৮০ জনের। যদিও সুস্থ হয়ে ওঠার হারও বেড়েছে। ইতিমধ্যেই সুস্থ হয়েছেন ৩ লক্ষ ২১ হাজার ৭২৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১২ হাজার ১০ জন।